• রোববার ২৩ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৯ ১৪৩১

  • || ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আজকের খুলনা

দুর্যোগ উপকূলীয় অঞ্চলে জীবন যাপন কঠিন করে তুলছে : ভূমিমন্ত্রী

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ৩০ মে ২০২৪  

ভ‚মি মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এমপি বলেছেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ উপক‚লীয় অঞ্চলে জীবন যাপন কঠিন করে তুলছে। যদিও দুর্যোগ প্রশমনে সরকারের উদ্যোগ এবং আন্তরিকতার কোন অভাব নেই। ইতোমধ্যে উপক‚লীয় অঞ্চলসহ দুর্যোগ প্রবণ এলাকার জন্য সরকার দুর্যোগ প্রতিরোধে নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছে। এসব পদক্ষেপের ফলে দুর্যোগের ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানী অতিতের চেয়ে অনেকাংশে কমে এসেছে। 
মন্ত্রী বলেন, ঘূর্ণিঝড় রেমাল-এর আঘাতে যেসব স্থানে বাঁধ ভেঙে পোল্ডারের ভিতরে প্লাবিত হয়েছে এর বেশির ভাগ বাঁধ দুর্বল ছিল বলে জানা গেছে। কেন দুর্বল ছিল এবং কেন মজবুত করা যায়নি সেটি খতিয়ে দেখা হবে। তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভ‚মি অধিগ্রহণের নামে কোন বাঁধ নির্মাণ কাজ আটকে রাখা যাবে না। সরকার এখন ভ‚মি অধিগ্রহণে স্বাভাবিকের চেয়ে ৩ গুণ বেশি মূল্য দেয়।

মন্ত্রী গতকাল বুধবার দুপুরে ঘূর্ণিঝড় রেমাল-এর আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত পাইকগাছার দেলুটী ইউনিয়নে তেলিখালী এলাকা পরিদর্শন ও ত্রাণ বিতরণ শেষে ফুলবাড়ী বাজারে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 

মন্ত্রী বলেন, দেলুটীর ২২নং পোল্ডার কৃষিতে অত্যন্ত সমৃদ্ধ এলাকা। এখানে লবণ পানি ওঠানো হয় না। কৃষি ফসল হয়, সবুজে ভরা গাছ-পালা, গবাদি পশু ও মিষ্টি পানির মাছ চাষ করে এখানকার মানুষ সুন্দর জীবন যাপন করতো। এখান থেকে বছরে কোটি কোটি টাকার তরমুজ বিক্রি হয়। দুর্যোগ এখানকার সবকিছু শেষ করে দিয়েছে। দুর্যোগে ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সরকার ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে থাকবে। অর্থের কারণে বাঁধ মেরামত কাজ আটকে থাকবে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দুর্যোগ সম্পর্কে অবহিত আছেন। 
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহেরা নাজনীন-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় সংসদ সদস্য রশীদুজ্জামান ভ‚মি মন্ত্রীর মাধ্যমে দ্রুত বাঁধ মেরামত, ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার লবণ পানি নিষ্কাশন ও দুর্গত মানুষকে যত দ্রুত সম্ভব তাদের ঘরে ফিরিয়ে দিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। 
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার ইকবাল মন্টু, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুশান্ত কুমার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক পিতান কুমার মন্ডল, ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল-আমিন, সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) ইফতেখারুল ইসলাম শামীম, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ অসীম কুমার দাস, উপজেলা প্রকৌশলী শাফিন শোয়েব, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইমরুল কায়েস, জনস্বাস্থ্যের উপ-সহকারী প্রকৌশলী শাহাদাৎ হুসাইন, ইউপি চেয়ারম্যান রিপন কুমার মন্ডল, কয়রা উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক নিশিত রঞ্জন ও দেলুটী ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি নির্মল মন্ডল।
এদিকে বুধবার দুপুরে ভূমিমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ ডুমুরিয়া উপজেলার সাহস, মাগুরখালি, শরাফপুর ও ভান্ডারপাড়া ইউনিয়নে ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন এবং ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, আলু ও মুরগির মাংস। মন্ত্রী বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রায় সাড়ে তিনশ’ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। 
এ সময় ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আল-আমিন, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিসুজ্জামান মাসুদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ আ’লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা