• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আজকের খুলনা

জেলা বিএনপি’র যুগ্ম-আহবায়ক মিন্টুসহ ৫ জনের নামে সড়ক বিভাগের মামলা

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০২২  

দিঘলিয়া উপজেলার নগরঘাটে ভৈরব নদীর ওপর ব্রিজ নির্মাণের জন্য অধিগ্রহণকৃত জমির স্থাপনা হতে মালামাল চুরির ঘটনায় উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি ও জেলা বিএনপি’র যুগ্ম-আহŸায়ক এম সাইফুর রহমান মিন্টুর নাম উলে­খ করে আরও ৪/৫ জনকে অজ্ঞাত উলে­খ করে সড়ক বিভাগ খুলনা দিঘলিয়া থানায় মামলা করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, খুলনা সড়ক বিভাগের রেলিগেট-আড়ুয়া-গাজীরহাট-তেরখাদা জেলা সড়কের (জেড-৭০৪০) ১ম কিলোমিটারে ভৈরব নদীর ওপর চলমান ভৈরব সেতু নির্মাণের জন্য জেলা প্রশাসক  অধিগ্রহণকৃত জমির মূল্য মালিকগণকে ক্ষতিপূরণের টাকা চেকের মাধ্যমে প্রদান করেন। এর মধ্য দিয়ে এলাকার জমি, স্থাপনাসহ সকল মালামাল (ব্যবহার্য্য) অস্থায়ী মালামাল সরকারি বলে গণ্য হয়। সড়ক বিভাগ পরবর্তীতে নিলামের মাধ্যমে মালামাল বিক্রি করে সেতু ও সড়কের জন্য পরিস্কার জায়গা উন্মুক্ত করবেন। কিন্তু এরই মধ্যে অধিগ্রহণকৃত এলাকার বিভিন্ন বাড়িঘর হতে মালমাল চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে বলে সড়ক বিভাগ জানতে পারে। গত ৭ নভেম্বর দুপুরে সড়ক উপ-বিভাগের-০২ খুলনা এর কার্য সহকারী মোঃ জলিলুর রহমান এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন (দিঘলিয়া থানার জিডি নং-২৮৯)। ওই দিন রাতে থানা পুলিশ গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে কে বা কারা দেয়াড়া খেয়াঘাট এলাকার কৃষান রাইস মিলের মধ্যে কিছু কাঠের ও লোহার মালামাল গোপনে রাখেছে। খবর পেয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (দায়িত্ব প্রাপ্ত) রিপন কুমার সরকারের নেতৃত্বে এস আই রানা প্রতাপ ও এ এস আই শাহিদুল ইসলামসহ সঙ্গীয় ফোর্স রাত ১২টার দিকে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময়  রাইস মিলের মধ্যে রাখা কাঠের ও লোহার মালামাল জব্দ করে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানতে পারেন মালামাল উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি সাইফুর রহমান মিন্টু মোল­া এখানে এনে রেখেছেন। এ খবর জানতে পেরে সওজ সড়ক উপ-বিভাগ-০২ খুলনা এর কার্য সহকারী মোঃ জলিলুর রহমান (৫০) বাদী হয়ে গতকাল বুধবার দিঘলিয়া থানায় এম সাইফুর রহমান মিন্টু (৫১), পিতা-মৃত নওশের মোল­া, সাং-দেয়াড়া, উলে­খ করে এবং আরও ৪/৫ জন অজ্ঞাত ব্যক্তির নামে মামলা দায়ের করেন। মামলায় উলে­খ করা হয় মিন্টু মোল­া অধিগ্রহণকৃত এলাকায় তার বাড়ি হতে কাঠের নকশাকৃত ৪টি জানালা, জানালার থাইগ্লাস ১টি, দরজার নকশাকৃত কাঠের পাল­া ৪টি, দরজার ফ্রেম ৩টি, লোহার গ্রীল ৩টি চুরি করেছে। যার বাজার মূল্য এক লক্ষ দশ হাজার টাকা এ বিষয়ে জানতে চাইলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (দায়িত্ব প্রাপ্ত) রিপন কুমার সরকার বলেন, সড়ক বিভাগ চুরির ঘটনায় মামলা দায়ের করেছেন। আটক মালামাল এ মামলায় উদ্ধার দেখানো হবে। আসামি গ্রেফতারের জন্যে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা