• মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৪ ১৪৩০

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪৫

আজকের খুলনা

সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রমাণ দেখতেই ভোটে অংশ নিচ্ছি:আখতারুজ্জামান

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩  

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভোটে অংশ নিচ্ছেন বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত সাবেক সংসদ সদস্য মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জন। বিএনপি ও তারেক রহমানের সমালোচনা করায় দল থেকে বহিষ্কার হন তিনি। নির্বাচন ও বিএনপির বর্তমান রাজনীতি প্রসঙ্গে রবিবার  কথা বলেছেন দলটির সাবেক এই নেতা।

তিনি বলেন, ‘আমি কেন এই সরকারের অধীনে নির্বাচন করতে যাচ্ছি এ নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকে, এর জবাবে বলতে চাই, ‘সরকার বলছে এ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে। তাই আমি এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে এর প্রমাণ দেখতে চাই।

৭ জানুয়ারির নির্বাচন কেমন হবে বলে আপনি মনে করেন? এমন প্রশ্নের জবাবে মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জন বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু হতেই হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। সরকারের আগামী দিনের অস্তিত্ব নির্ভর করে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ওপর। যেকোনো কিছুর বিনিময়ে সরকারকে আসন্ন নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ করতেই হবে।

তিনি বলেন, এটিই ছিল বিএনপির জন্য একটি বিশাল সুযোগ। এ সুযোগটি বিএনপি সদ্ব্যবহার করতে পারলে সরকারকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে পারতো এবং অর্থনীতিতে একটি ইতিবাচক গতি সৃষ্টি করতে পারতো। সেই সঙ্গে দেশের গণতান্ত্রিক নির্বাচনমুখী রাজনৈতিক ধারা পুনরায় সৃষ্টি হতে পারতো। এখন যে ধারা শুরু হয়েছে তাতে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা অনেক কঠিন হয়ে যাচ্ছে। ফলে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা বহুদিনের জন্য শিকড় গেড়ে বসতে পারে।

বিএনপির বর্তমান নেতৃত্ব এবং চলমান আন্দোলন নিয়ে আপনার মতামত কী? জবাবে আখতারুজ্জামান বলেন, বিএনপির নেতৃত্বে একটি একটি বিশাল শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে। দেশমাতা খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি এখানে একটি শক্তিশালী দল হিসাবে দাঁড়িয়ে গিয়েছিল। সেখানে ২০০১ সাল থেকে তারেক রহমানের কারণে সে অবস্থান চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে গেছে। দেশমাতা খালেদা জিয়া বিনা অপরাধে সন্তানকে বাঁচাতে গিয়ে জেলের ঘানি টানছেন। তারই ধারাবাহিকতায় তারেক রহমানের ভ্রান্ত রাজনীতির কারণে দেশের লাখ লাখ নেতাকর্মী আজ জেলে বন্দি আছেন এবং পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। অথচ একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলের ওপর এমন দমনপীড়ন চালানোর মধ্যে একটি সরকার টিকে থাকার কথা নয়।

আগামী নির্বাচনে আপনি জয়ের বিষয়ে আশাবাদী? উত্তরে সাবেক এই সংসদ সদস্য বলেন, নির্বাচনে আমি জয়ী হবো, তা আমি বলছি না। আমি সুষ্ঠু নির্বাচনের বিষয়ে আশাবাদী। সরকার বলছে এ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে। তাই আমি এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে এর প্রমাণ দেখতে চাই।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা