• বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

আজকের খুলনা

বিকেলে পিতার দাফন সকালে দাখিল পরীক্ষা

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ৩০ এপ্রিল ২০২৩  

বিকেলে পিতার দাফন সম্পন্ন। সকালে দাখিল পরীক্ষা মেধাবী ছাত্রী জান্নাতী আক্তারের। চাচাতো ভাই হোসাইন শেখের লাঠির আঘাতে নিহত পিতার শোক নিয়ে পরীক্ষার হলে পৌঁছাতে হবে তাকে। জান্নাতী আক্তার বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার আড়–য়াবর্ণী চরপাড়া গ্রামের নিহত ইউনুস আলী শেখের বড় মেয়ে ও চিতলমারী আলিয়া মাদ্রাসার মেধাবী ছাত্রী এবং ২০২৩ সালের দাখিল পরীক্ষার্থী। আজ (৩০ এপ্রিল) সকালে শুরু হবে তার দাখিল পরীক্ষা। মেয়েকে ঘিরে কৃষক পিতার অনেক স্বপ্ন ছিল। কিন্তু স্বপ্ন পূরণের আগেই তাঁকে বিদায় নিতে হলো। 
গত শুক্রবার সন্ধ্যায় আমড়া গাছের ডাল কাটাকে কেন্দ্র করে ভাতিজা হোসাইন শেখের (২৫) হাতে চাচা ইউনুস আলী শেখ (৪১) নিহত হন। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এইচ এম কামরুজ্জামান খান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হত্যাকান্ডের অল্প সময়ের মধ্যে উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করে ঘটনার সাথে জড়িত অভিযোগে হোসাইন শেখ ও তাঁর মা বেবিয়া বেগম ওরফে বেবি (৪৫) কে আটক করেন। এদিন রাতে নিহতের ভাই মোঃ সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে হোসাইন শেখ ও বেবিয়া বেগম ওরফে বেবির নামে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। শনিবার সকালে মা ও ছেলেকে আদালতে এবং নিহতের মরদেহ বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে থানা পুলিশ। বিকেলে নিহত ইউনুস আলী শেখের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পৌঁছালে নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে তাঁর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। এ সময় স্বজনদের আহাজারিতে এক হৃদয় বিদারক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। 
চিতলমারী আলিয়া মাদ্রাসা সুপার মোঃ ইদ্রিসুর রহমান জানান, ২০২৩ সালের দাখিল পরীক্ষার্থীদের মধ্যে তাঁর মাদ্রাসায় জান্নাতী আক্তার সবার সেরা। তিনি জান্নাতীর জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন। চিতলমারী থানার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, খরব পেয়ে রাতেই হত্যাকান্ডের অভিযোগে মা ও ছেলে আটক করা হয়। এ ঘটনায় নিহতর ভাই মোঃ সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে হোসাইন শেখ ও বেবিয়া বেগম ওরফে বেবির নামে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। সার্বিক পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।   

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা