• মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৪ ১৪৩০

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪৫

আজকের খুলনা

হায়নাদের হাত থেকে দেশ বাঁচাতে সুষ্ঠু নির্বাচনের কোন বিকল্প নেই

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩  

খুলনা-২ আসনের সদর ও সোনাডাঙ্গা থানার ১৬টি ওয়ার্ড নিয়ে মহানগর আ’লীগের উদ্যোগে কর্মীসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বাদ মাগরিব দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগর আ’লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা তালুকদার আব্দুল খালেক। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল। সভা পরিচালনা করেন মহানগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা। 
সভাপতির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, ৭ জানুয়ারির নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করে ভোটারদেরকে ভোট প্রদানে উৎসাহিত করে কেন্দ্রে আনতে হবে। এখন থেকে সবাই সংঘবদ্ধভাবে ভোটারদের বাড়িতে যেতে হবে। তিনি আরো বলেন, এক শ্রেণির রাজনৈতিক কর্মীরা বাংলাদেশের গণতন্ত্রের এ যাত্রাকে ব্যাহত করতে চায়। গণতন্ত্রের মূলমন্ত্রই হচ্ছে নির্বাচন। এই নির্বাচনকে দেশে বিদেশে প্রশ্নবিদ্ধ করতে এবং গণতন্ত্রের যাত্রাকে ব্যাহত করতে বিএনপি-জামায়াত অপতৎপরতায় লিপ্ত হয়েছে। ওই সকল ষড়যন্ত্রকে প্রতিহত করে নির্বাচনকে অবাধ ও সুষ্ঠু করতে হবে। তিনি আরো বলেন, বিএনপি-জামায়াত দেশব্যাপী হামলা, অগ্নি সন্ত্রাস করে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। ওদের চক্রান্তের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে হবে। আর হায়নাদের হাত থেকে দেশ বাঁচাতে হলে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের কোন বিকল্প নেই। সে লক্ষেই আ’লীগের নেতা-কর্মীদের প্রতিটি ওয়ার্ডে ভোটারদের কাছে সরকারের উন্নয়নের বার্তা পৌঁছে দিতে হবে। প্রত্যেকটি ওয়ার্ড কমিটি এবং সেন্টার কমিটি তাদের নেতাকর্মীদের নিয়ে প্রশিক্ষিত ক্যাম্পেনারদের মাধ্যমে ভোটারদের কাছে যেতে হবে। সেন্টার কমিটির প্রত্যেকটি নেতা-কর্মীকে সক্রিয়ভাবে ভোটারদের কাছে গিয়ে তাদের সুবিধা অসুবিধার খোঁজ নিতে হবে। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আ’লীগ নেতা কাজি আমিনুল হক, মিজানুর রহমান মিজান, কাজী এনায়েত হোসেন, মলি­ক আবিদ হোসেন কবীর, মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন মিন্টু, মুক্তিযোদ্ধা শ্যামল সিংহ রায়, এড. রজব আলী সরদার, এড. আইয়ুব আলী শেখ, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, জামাল উদ্দিন বাচ্চু, আবুল কালাম আজাদ কামাল, মুক্তিযোদ্ধা অধ্যা. আলমগীর কবির, শেখ মোঃ আনোয়ার হোসেন, প্যানেল মেয়র আলী আকবর টিপু, জোবায়ের আহমেদ খান জবা, মোঃ মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, মুক্তিযোদ্ধা ফেরদৌস আলম চাঁন ফারাজী, শামছুজ্জামান মিয়া স্বপন, এড. অলোকা নন্দা দাস, হালিমা রহমান, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন খান, কামরুল ইসলাম বাবলু, বীরেন্দ্র নাথ ঘোষ, হাফেজ মোঃ শামীম, মোঃ মফিদুল ইসলাম টুটুল, শেখ নুর মোহাম্মদ, এড. সরদার আনিসুর রহমান পপলু, শেখ মোশাররফ হোসেন, অধ্যাপক রুনু ইকবাল বিথার, আজগর আলী মিন্টু, মাহবুবুল আলম বাবলু মোল­া, এড. মোঃ সাইফুল ইসলাম, সিদ্দিুকুর রহমান বুলু বিশ্বাস, কাউন্সিলর ফকির মোঃ সাইফুল ইসলাম, তসলিম আহমেদ আশা, তরিকুল আলম খান, কাজী জাহিদ হোসেন, কাউন্সিলর হাফিজুর রহমান হাফিজ, কাউন্সিলর শেখ মোঃ গাউসুল আজম, এস এম আকিল উদ্দিন, শেখ আবিদ উল­াহ, মোঃ নুর ইসলাম, শেখ জাহিদুল ইসলাম, শেখ জাহিদুল হক,  চ ম মুজিবর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা মুন্সি আইয়ুব আলী, শেখ আব্দুল আজিজ, মঈনুল ইসলাম নাসির, ফেরদৌস হোসেন লাবু, চৌধুরী মিনহাজ উজ জামান সজল, বাবুল সরদার বাদল, আব্দুল হাই পলাশ, জামিরুল হুদা জহর, এড. ফারক হোসেন শেখ, জিয়াউল ইসলাম মন্টু, কাউন্সিলর শেখ হাসান ইফতেখার চালু, ইউসুফ আলী খান, মুন্সি মোঃ মোত্তালিব মিয়া, মীর মোঃ লিটন, মোঃ রুহুল আমিন, সরদার আব্দুল হালিম, আতাউর রহমান শিকদার রাজু, শেখ এশারুল হক, মোঃ আজম খান, মোঃ ফায়েজুল ইসলাম টিটো, এড. শামীম মোশাররফ, নজরুল ইসলাম তালুকদার, ওহিদুল ইসলাম পলাশ, মোঃ শিহাব উদ্দিন, মুন্সি মোঃ সেলিম হোসেন, তকদির এ এলাহী, এড. সুলতানা রহমান শিল্পী, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মোতালেব মিয়া, রনজিত কুমার ঘোষ, এড. এ কে এম শাহজাহান কচি, মোঃ সফিকুর রহমান পলাশ, এম এ নাসিম, শেখ শাহজালাল হোসেন সুজন, অধ্যা. এ বি এম আদেল মুকুল, এস এম আসাদুজ্জামান রাসেল, মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল জব্বার, এড. রাবেয়া ওয়ালী করবী, শেখ নুজিবুল ইসলাম নজিব, আইরিন চৌধুরী নীপা, নাসরিন ইসলাম তন্দ্রা, নাজনিন নাহার বিউটি, কাউন্সিলর এস এম মোজাফ্ফর রশিদী রেজা, কাউন্সিলর ইমাম হাসান চৌধুরী ময়না, কাউন্সিলর এস এম রাজুল হাসান রাজু, কাউন্সিলর ইমরুল হাসান, কাউন্সিলর মাহমুদা বেগম, কাউন্সিলর এড. জেসমিন পারভীন জলি, পারভিন ইলিয়াছ, নুরিনা রহমান বিউটিসহ আ’লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী।  

কর্মী সভায় খুলনা-২ আসনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনার জন্য মহানগর নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে মহানগর আ’লীগ সহ-সভাপতি ও খুলনা চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি কাজি আমিনুল হককে আহবায়ক এবং খুলনা মহানগর আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানাকে সদস্য সচিব ও মহানগর আ’লীগ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শহিদুল হককে সমন্বয়কসহ মহানগর আ’লীগ নেতৃবৃন্দ, থানা, ওয়ার্ড আ’লীগ ও মহানগর পর্যায়ের সহযোগী সংগঠনের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক/ আহবায়ক সদস্য সচিব এবং দলীয় কাউন্সিলরদেরকে এ কমিটির সদস্য করা হয়েছে। এ ছাড়া দফতর ও প্রচার উপ-কমিটি গঠন করা হয়। দপ্তর উপ-কমিটিতে মোঃ মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগকে আহবায়ক এবং হাফেজ মোঃ শামীমকে সদস্য সচিব, প্রচার উপ-কমিটিতে কাউন্সিলর জেড এ মাহমুদ ডনকে আহবায়ক ও মোঃ মফিদুল ইসলাম টুটুলকে সদস্য সচিব করে কমিটি গঠন করা হয়। অনুরূপ সদর ও সোনাডাঙ্গা থানায় নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়। সদর থানায় এড. মোঃ সাইফুল ইসলামকে আহবায়ক ও কাউন্সিলর ফকির মোঃ সাইফুল ইসলামকে সদস্য সচিব এবং সোনাডাঙ্গা থানায় সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাসকে আহবায়ক ও তসলিম আহমেদ আশাকে সদস্য সচিব করে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়।

এছাড়া নির্বাচনকালে ৩১নং ওয়ার্ডে এড. আইয়ুব আলী শেখকে আহŸায়ক এবং মোঃ শামীমুর রহমান শামীমকে সদস্য সচিব, ৩০নং ওয়ার্ডে জোবায়ের আহমেদ খান জবাকে আহবায়ক ও এড. ফারুক হোসেন শেখকে সদস্য সচিব, ২৮নং ওয়ার্ডে বাবুল সরদার বাদলকে আহবায়ক, কাউন্সিলর জিয়াউল হাসান টিটুকে সদস্য সচিব, ২০নং ওয়ার্ডে আবুল কালাম আজাদ কামালকে আহবায়ক, চ ম মুজিবর রহমানকে সদস্য সচিব, ১৯নং ওয়ার্ডে শেখ নুর মোহাম্মদকে আহবায়ক, মুন্সি মোঃ মোত্তালিব মিয়াকে সদস্য সচিব, ১৮নং ওয়ার্ডে অধ্যাপক আলমগীর কবিরকে আহবায়ক ও শেখ জাহিদুল ইসলামকে সদস্য সচিব, ১৭নং ওয়ার্ডে মোঃ নুর ইসলামকে আহবায়ক ও ইউসুফ আল খানকে সদস্য সচিব করে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা