শুক্রবার   ২২ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬   ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বাটিয়াঘাটায় বাড়ছে নেপিয়ার ঘাসের চাষ

বাটিয়াঘাটা প্রতিনিধি

আজকের খুলনা

প্রকাশিত : ১২:১২ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শনিবার

গবাদি পশুর খাদ্যের চাহিদা মেটাতে খুলনার বাটিয়াঘাটায় খড়ের বিকল্প খাদ্য হিসেবে ব্যবহৃত নেপিয়ার ঘাসের চাষ বাড়ছে।

কৃষি ও পতিত জমি এবং বাড়ির আশে-পাশে কান্ড রোপন করে ব্যাপকহারে এ ঘাসের চাষাবাদ হচ্ছে। ফলে আত্মনির্ভশীল হচ্ছে অনেক পরিবার।

১৪টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত বাটিয়াঘাটা উপজেলার বেশির ভাগ মানুষের পেশা কৃষি। পাশাপাশি অনেকেই গরু-ছাগল সহ বিভিন্ন গবাদিপশু পালন করেন। সম্প্রতি এ অঞ্চলে গরু পালন বেড়ে যাওয়ায় পশুখাদ্যের চাহিদা মিটাতে, বিশেষত খড়ের বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে বিদেশি নেপিয়ার জাতের ঘাস।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, কৃষি ও পতিত জমি এবং বাড়ির আশেপাশে নেপিয়ার ঘাসের চাষ হচ্ছে। কান্ড রোপন করে এ ঘাসের চাষাবাদ করা হয়। ঘাস কাটার পর ওই গোড়া থেকেই আবার নতুন ঘাস জন্ম নেয়। ফলে নতুন করে আর রোপন করা লাগে না।

তারা জানান, সার ও কীটনাশক ছাড়া শুধুমাত্র গোবর ব্যবহার করে মাত্র ১৫ দিন পরপর এ ঘাস কাটা যায়। এছাড়া এ ঘাস খাওয়ালে গবাদিপশুর শরীরে কোনো ধরনের ক্ষতিকর প্রভাব পড়েনা।

বাটিয়াঘাটা উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা বলেন, ‘কান্ড রোপন করে নেপিয়ার ঘাসের চাষাবাদ করা হয়। কোন ধরনের কীটনাশক ব্যবহার করা লাগে না। শুধুমাত্র গোবর সার ব্যবহার করে দ্রুত বর্ধনশীল এ ঘাষের চাষাবাদ করা যাচ্ছে। কোন ক্ষতিকর প্রভাব না থাকায় এ ঘাস গবাদিপশুর জন্য খুবই উপযোগী।’