মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ২৯ ১৪২৬   ১৫ সফর ১৪৪১

জনগণের ভাগ্য গড়াটাই আমাদের লক্ষ্য : শেখ হাসিনা

ঢাকা অফিস

আজকের খুলনা

প্রকাশিত : ০১:০৪ পিএম, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ সোমবার

আওয়ামী লীগ জনগণের ভাগ্য গড়ে, জনগণের ভাগ্য গড়াই আমার লক্ষ্য। সে লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ সকালে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে এক নির্বাচনী জনসভায় একথা জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপির আমলে লোডশেডিংয়ে সারা দেশে অসহনীয় অবস্থা তৈরি হয়েছিল। বিএনপি-জামায়াতের এমপিরা জনগণের রোষের মুখে পড়েছিল। তাদের এক এমপির নামই হয়ে গেছিল দৌড় সালাহউদ্দিন। এলাকায় পানি না পেয়ে লোকজন তাকে তাড়া করেছিল।

‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর পানির সমস্যা নেই, বিদ্যুতের সমস্যা নেই। গ্রাম পর্যায়ে পর্যন্ত আমরা বিদ্যুৎ দিয়ে যাচ্ছি। কামরাঙ্গীরচর ছিল চরম অবেহেলার। জলাবদ্ধতা ছিল। ঢাকার পাশের ১৭টি ইউনিয়নই আমরা সিটি করপোরেশনে নিয়ে ব্যাপক উন্নয়ন করেছি।’ 

শেখ হাসিনা বলেন, অনেক বিদ্যালয় স্থাপন করেছি। এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রও আমরা করে দিয়েছি। এখানের সরকারি হাসপাতাল নির্মাণ করেছি। কোনো জলাবদ্ধতা নেই। এই এলাকায় ১০ হাজার ফ্ল্যাট নির্মাণের প্ল্যান করেছি। এসেব ফ্ল্যাটে দৈনিক, সাপ্তাহিক অথবা মাসিক ভাড়ায় থাকতে পারবেন নিম্ন আয়ের মানুষ।

তিনি বলেন, এসব এলাকায় খালে যেন পানি থাকে সব সময় সেটা আমরা দেখবো। আগুন লাগলে যেন পানি দিয়ে নেভাতে পারে। কোনো জলাশয় বন্ধ করা উচিত না। যারা খাল দখল করে আছেন তাদের বলবো খাল দখল বন্ধ করতে হবে।

‘উন্নয়নের ধারাবাহিকতা থাকা দরকার। ঢাকায় অনেকগুলো উন্নয়ন কাজ হচ্ছে। ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ঢাকায় পাতালরেল করবো। সম্ভাব্যতা যাচাইও শেষ হয়েছে। আমরা সারা দেশে উন্নয়নের মহাপরিকল্পনা নিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, আগামী নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিগত দিনে বিএনপি-জামায়াত জোট জনগণকে কিছু দিতে পারেনি। তারা শুধু নিতে পারে। আর আওয়ামী লীগ শুধু দিতে জানে। যে পরিকল্পনা সামনে নেওয়া হয়েছে সে ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য আওয়ামী লীগের ফের ক্ষমতায় আসা দরকার।

এসময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওতাধীন আসনগুলোতে মহাজোটের প্রার্থীদের জন্য ভোট চান প্রধানমন্ত্রী।