• রোববার ২৩ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৯ ১৪৩১

  • || ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আজকের খুলনা

সুন্দরবনে চোরাই পথে মধু সংগ্রহে গিয়ে কুমিরের আক্রমণে মৌয়াল নিহত

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ৯ জুন ২০২৪  

সুন্দরবনে মধু সংগ্রহ করতে গিয়ে কুমিরের আক্রমণে এক মৌয়াল নিহত হয়েছে। শনিবার দুপুরের জোয়ারে বনের করমজল খাল দিয়ে সাঁতরে কিনারে আসতে গিয়ে এ দুর্ঘটনার শিকার হয় মৌয়াল মোসারেফ গাজী।
করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির বলেন, গত দুই দিন আগে ঢাংমারী স্টেশনের একটি খাল দিয়ে চোরাই পথে সুন্দরবনের করমজল এলাকার গহীনে মধু সংগ্রহের জন্য যান মোশারেফ গাজীসহ বেশ কয়েকজন সহযোগী মৌয়াল। শনিবার দুপুরের দিকে করমজল খালের ভিতর থেকে জোয়ারের সময় সাঁতার কেটে এক পাড় থেকে অন্য পাড়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ একটি কুমির আক্রমণ করে মোসারেফ গাজীকে। মুহূর্তের মধ্যে তাকে টেনে হিঁচড়ে খালটির পানির মধ্যে নিয়ে যায়। সাথে থাকা অন্য সহযোগীরা প্রাণপণ চেষ্টা করেও তাকে রক্ষা করতে পারেনি। পরে নৌকা যোগে প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্টার পর নদীতে ভাসমান একটি গাছের ডালের সাথে বাঁধানো অবস্থায় মৌয়াল মোসারেফ গাজীর মরদেহ উদ্ধার করে। সাথে থাকা অন্য সহযোগী সেকান্দার মলি­ক, জাকারিয়া শেখ ও গৌতম মন্ডল প্রাণে বেঁচে যায়। এদের সকলের বাড়ি দাকোপ উপজেলার বানীশান্তা ইউনিয়নের ঢাংমারী গ্রামে। নিহত মোসারেফ গাজী একই এলাকার মৃত আমীর আলী গাজীর ছেলে। 

বিকেলে মৃত মোসারেফ গাজীর মরদেহ দাকোপ থানা পুলিশ উদ্ধার করে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। স্থানীয় আবেদ আলী জানায়, প্রতিনিয়ত সুন্দরবনে মৃত্যুর মুখে পড়ে বনজীবীরা, কিন্তু বন বিভাগ কোন কর্ণপাত করেনা। এরকম ঝুঁকিপূর্ণ কাজকে পেশা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে তাদের জীবনমান উন্নয়ন না করলে এমন মৃত্যু প্রতিদিন আমাদের দেখতে হবে।

পূর্ব সুন্দরবনের ঢাংমারী স্টেশন কর্মকর্তা মহাসিন হোসেন জানায়, গত ১ জুন আমাদের অফিস থেকে মধু সংগ্রহের মৌয়াল, জেলে ও পর্যটকসহ সকল প্রকারের পাসপারমিট বন্ধ রাখা হয়েছে বন বিভাগের পক্ষ থেকে। করমজল খালে কুমিরের আক্রমণে মোসারেফ গাজী নামে একজন নিহত হয়েছে শুনেছি, কিন্তু পাস পরমিট বিহীন কি ভাবে সুন্দরবনে প্রবেশ করেছে তা নিয়ে তদন্ত করা হবে। এছাড়া যার কোন পাস পারমিট নাই সেই মৌয়াল বা জেলে বনে নিহত হলে বন বিভাগ এর দায়ভার নিবে না বলে জানান বনের এ কর্মকর্তা। 

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা