• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৪ ১৪২৯

  • || ২১ মুহররম ১৪৪৪

আজকের খুলনা

কয়রায় ঘর দেওয়ার নামে অর্থ আত্মসাৎ, ভুয়া ইউএনও শ্রীঘরে

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১ আগস্ট ২০২২  

খুলনার কয়রায় ইউএনও পরিচয় দিয়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা হাতিয়ে নেওয়া চক্রের মুল হোতা ভুয়া ইউএনও মোঃ সাকিব সরদার কে আটক করেছে কয়রা থানা পুলিশ।

রবিবার (৩১ জুলাই) উপজেলার সদর ইউনিয়নের কয়রা বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক সাকিব উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের সিমলারআইট গ্রামের মোঃ সিরাজুল ইসলাম সরদারের ছেলে।

প্রতারক সাকিবকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমেই ৬ মাসের কারাদণ্ড দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অনিমেষ বিশ্বাস।

গত কয়েক মাস আগে এই চক্রটি উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

এই চক্রের প্রধান সাকিব ইউএনও সেজে ভুক্তভোগীদের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলতেন। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে এ চক্রের আরেক হোতা মহারাজপুর ইউনিয়নের কালনা গ্রামের আব্দুর সাত্তার সানাকে ভুক্তভোগীরা আটক করে কয়রা থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

কয়রা থানার অফিসার ইনচার্জ এ বি এম এস দোহা ( বি পি এম) বলেন, বিভিন্ন সময়ে ইউএনও বা বড় অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলেন সাকিব। তাকে আজ আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অনিমেষ বিশ্বাস বলেন, একটি প্রতারক চক্র উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাইয়ে দেওয়ার নাম করে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলো। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে এই চক্রের প্রধান সাকিব আত্মগোপন করে। আজ সে কোর্টে একটি মামলার স্বাক্ষী দিতে আসলে তাকে আটক করা হয় এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা