• সোমবার   ১৭ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৪ ১৪২৮

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আজকের খুলনা

না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন রূপসার মেধাবী ছাত্র পিয়াল

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ৬ জানুয়ারি ২০২২  

খুলনা জিলা স্কুল ও সরকারি সুন্দরবন কলেজের মেধাবী ছাত্র পিয়াল এখন পিতা-মাতা, বোন এবং বন্ধুদের কাছে শুধুই স্মৃতি। গতকাল বুধবার ইবনে শামস পিয়ালের মৃতদেহ রূপসা উপজেলার শ্রীফলতলা ইউনিয়নের জোয়ার গ্রামে পৌঁছালে তার নিকটাত্মীয়সহ গ্রামের সর্বস্তরের জনসাধারণ ছুটে আসে তাকে শেষ বারের মতো দেখার জন্য। আর বাড়িতে পিতা, মাতা দুই বোন আর নিকটাত্মীয়রা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে বারবার মুর্ছা যাচ্ছিলেন। বাড়িতে আসে রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনসহ বিভিন্ন স্তরের হাজারো মানুষ। সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে ২০ দিন মৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করে পরাজিত হয়ে গতকাল ভোরে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে চলে যেতে হয় পিয়ালকে। (ইন্নালিল¬াহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন, আমরাতো আল¬াহর এবং আল¬াহর কাছেই ফিরে যাবো)।

পিয়ালের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ইসলাম আল কাদির চমক কান্না জড়িত কন্ঠে এ প্রতিনিধিকে জানান, বন্ধু পিয়াল এভাবে আমাদের ফাঁকি দিয়ে চলে যাবে ভাবতেই পারিনি। ও এখন আমাদের মাঝে সারা জীবনের স্মৃতি হয়ে থাকবে। পিয়ালের সাথে সর্বশেষ চমকের দেখা হয় গত ৯ ডিসেম্বর চমকের বাড়িতে। এ সময় লেখাপড়া সংক্রান্ত বিভিন্ন কথা বার্তা আলোচনা করে পিয়াল বাসায় ফিরে যায়। তখনও চমক জানেনা এই বুঝি পিয়ালের সাথে শেষ দেখা। 

এলাকাবাসী জানায়, এমন গর্বিত সন্তান রূপসা উপজেলায় বিরল। সে খুলনা জিলা স্কুল থেকে ৫ম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিলাভ, অষ্টম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিলাভ এবং ২০২০ সালে এসএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ ৫ পেয়ে বাবা মাসহ সকলের মুখ উজ্জ্বল করে। বর্তমানে পিয়াল সরকারি সুন্দরবন কলেজের এইচএসসি বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের কৃতি ছাত্র। এমন ছেলে বাবা মা’র কোল ছেড়ে চলে যাওয়া যে কতো কষ্টের তা শুধু বাবা মা’ই বুঝতে পারে। এমন কথা জানাজা’র পূর্ব মুহূর্তে পিয়ালের বাড়িতে দেখতে আসা শত শত নরনারীর মুখে শোনা গেছে।

পিয়াল শ্রীফলতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম বিশ^াসের একমাত্র পুত্র। দুই বোনের আদরের ছোট ভাই পিয়াল গত ১৬ ডিসেম্বর মোটরসাইকেল যোগে পাইকগাছা থেকে খুলনায় ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হয়। প্রথমে তাকে খুলনার একটি বেসরকারি হাসপাতালে এবং অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদী তার সার্বিক খোঁজ খবর রাখেন এবং যাবতীয় খরচ বহন করেন। অবশেষে তাকে ঢাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২০ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গতকাল ভোরে তাকে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে চলে যেতে হয় তাকে। পিয়াল এখন সকলের কাছে স্মৃতি হয়েই থাকবে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা