• মঙ্গলবার   ১৬ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ১ ১৪২৯

  • || ১৯ মুহররম ১৪৪৪

আজকের খুলনা

বটিয়াঘাটায় কৃষক সমাবেশ, ‘খাদ্য অধিকার আইন’ প্রণয়নের দাবি

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২৪ অক্টোবর ২০২১  

বিশ্ব খাদ্য দিবস উৎযাপন করেছে লোকজ এবং খাদ্য নিরাপত্তা নেটওয়ার্ক (খানি), বাংলাদেশ। দিবস উপলক্ষ্যে দেশের সকল নাগরিকের জন্য জীবিকার নিশ্চয়তা, খাদ্য ও পুষ্টি অধিকার নিশ্চিত করার জন্য এবং খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়নের দাবিতে কৃষক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। খুলনার বটিয়াঘাটা গঙ্গারামপুর স্টার ইউনিট ক্লাব মাঠে আয়োজিত কর্মসূচির মধ্যে ছিল কৃষক সমাবেশ ও নারী কৃষকদের দঁড়াটানা প্রতিযোগিতা।

বটিয়াঘাটা উপজেলা মৈত্রী কৃষক ফেডারেশনের সভাপতি রবীন্দ্রনাথ ম-লের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কৃষক সমাবেশে অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বটিয়াঘাটা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কৃষক নেতা নিতাই গাইন, গঙ্গারামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হাদি-উজ-জামান হাদী, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইদ্রজিৎ টিকাদার, কর্মসূচি আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক নিকুঞ্জ বিহারী সরকার, লোকজ-এর নির্বাহী পরিচালক দেবপ্রসাদ সরকার, ইউপি সদস্য কামরুল শেখ, মহিলা ইউপি সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন পলি, সাংবাদিক রিংটন ম-ল, সমাজে সেবক নূর মোহাম্ম্দ মোল্লা, মো: শিমুল গাজী। আয়োজিত কর্মসূচিতে নারী কৃষকদের প্রতিনিধি, উন্নয়ন কর্মী, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কৃষক সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘খাদ্য অধিকার প্রত্যেক মানুষের মৌলিক অধিকার। ক্ষুধা, দারিদ্রতা, পুস্টিহীনতার সাথে খাদ্য অধিকার ওতপ্রোতভাবে জড়িত। খাদ্য অধিকার কোন দাতব্য বিষয় নয়, বরং প্রত্যেক মানুষ নিজেদের খাদ্যের সংস্থান করবে সেটাই খাদ্য অধিকারের লক্ষ্য। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানে খাদ্যকে জীবনধারণের মৌলিক চাহিদা হিসাবে চিহ্নিত করা হলেও ২০২০ সালের বিশ্ব খাদ্য নিরাপত্তা সূচকে ১১৩টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ৮৪তম এবং দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সর্ব নিম্নে অবস্থান করছে’।

দেশের সংবিধানে সব মানুষের জন্য অন্ন, বন্ত্র, বাসস্থান ও শিক্ষার ব্যবস্থা থাকার কথা থাকলেও অপুষ্টির শিকার ২ কোটি ৫৫ লাখ মানুষ তা পাচ্ছে না। জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) পূরণে বাংলাদেশ স্বাক্ষর করেছে। জাতিসংঘের হিসেব অনুযায়ী দেশের আড়াই কোটি মানুষ অপুষ্টিতে ভুগছে। ৪৪ শতাংশ নারী ভুগছে রক্তস্বল্পতায়। প্রকৃত উন্নয়নশীল দেশ হতে হলে এ পরিস্থিতি বদলাতে হবে। সে জন্য খাদ্য অধিকার আইন প্রনয়ণের উদ্যোগ অবিলম্বে কার্যকর করতে হবে।

সমাবেশ শেষে ৪টি নারী কৃষক সংগঠনের অংশগ্রহণে দঁড়াটানা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতায় গঙ্গারামপুর নারী উন্নয়ন কৃষক সংগঠন প্রথম স্থান, মাতুমঙ্গল কৃষক সংগঠন দ্বিতীয় স্থান এবং সবুজ কৃষক সংগঠন তৃতীয় স্থান অধিকার করে। প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দলগুলোকে ক্রেস্ট এবং সকল অংশগ্রহণকারীদের পুরষ্কৃত করা হয়। সূত্র : প্রেস রিলিজ।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা