• শনিবার   ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২২ ১৪২৯

  • || ১৩ রজব ১৪৪৪

আজকের খুলনা

উত্তরা থেকে কয়েক মিনিটে আগারগাঁও, মেট্রোরেলে সেলফির ধুম

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২৯ ডিসেম্বর ২০২২  

জ্যামের ভোগান্তি ছাড়াই কয়েক মিনিটে উত্তরা থেকে আগারগাঁও চলে এসেছি। যানজটের কষ্ট দূর হয়েছে। প্রথমবার মেট্রোরেলে চড়েছি। অনেক ভালো লাগছে আমার।

বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) সকালে উত্তরা থেকে আগারগাঁও মেট্রোরেল স্টেশনে পৌঁছে এমনটাই জানান কাজী আয়েশা।

শারমিন নাজ জাহানের সঙ্গে মতিঝিলে যাবেন দিয়াবাড়িতে মাইলস্টোনে পড়া অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী কাজী আয়েশা। দিয়াবাড়ি থেকে আগে মিরপুর, মতিঝিল, শাহবাগসহ এসব এলাকায় আগে ঘুরতে বা প্রয়োজনে আসতেন বাসে করে। দীর্ঘ জ্যামে আটকে থাকতেন। ভোগান্তিতে পড়তেন নগরীর এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে আসতে। দীর্ঘদিনের এই ভোগান্তির অবসান হয়েছে আজ।

মেট্রোরেল থেকে নেমে আয়েশা বলেন, উত্তরা থেকে মাত্র কয়েক মিনিটে আগারগাঁও চলে এসেছি। প্রথমবার মেট্রোরেলে উঠেছি। প্রথম দিনেই মেট্রোরেলে ভ্রমণ করে অনেক ভালো লাগছে। জ্যামের ভোগান্তি নাই।

তিনি বলেন, ট্রেনের ভেতরে কোনো ধরনের ঝামেলা হয়নি। সবাই বেশ এক্সাইটেড ছিল। এত দ্রুত চলে আসবো কল্পনাই করিনি। টিভিতে দেখি দেশের বাইরে মেট্রোরেল চলে। এখন নিজের দেশেই মেট্রোরেল চলছে এবং প্রথম দিনেই সেই মেট্রোরেলে ভ্রমণ করেছি। এটাই অনেক ভালো লাগছে।

আয়েশার মা শারমিন নাজ জাহান বলেন, মতিঝিলে একটা কাজে এসেছি। মেয়েকে নিয়ে তাই প্রথম দিনেই মেট্রোরেলে উঠেছি। প্রথম দিন টিকিট কাউন্টারে অনেক ভিড় ছিল। দুই ঘণ্টা লেগেছে টিকিট কাটতে। আরেকটু কম সময় লাগলে যাতায়াতটা বেশ ভালো হবে।

আজকের দিনটার জন্য আমরা অনেক এক্সাইটেড। সবাই মিলে এসেছি। একদম ভোরে এসে লাইনে দাঁড়িয়েছি। দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে টিকিট পেয়েছি। আমরা উত্তরা যাবো। আমাদের কোনো কাজ নেই, ঘুরতে যাচ্ছি। প্রথমবার মেট্রোরেলের টিকিট হাতে পেয়ে এমনটাই জানান শিক্ষার্থী তাজরিয়া।

তিনি বলেন, আমরা শেওড়াপাড়া থেকে এসেছি। বাংলাদেশে প্রথম মেট্রোরেল চালু হয়েছে প্রথম দিন তাই খুব এক্সাইটেড। আজকে মূলত পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসা। ঢাকা সিটি কলেজে পড়া এই শিক্ষার্থী বলেন, আপাতত উত্তরা যাওয়ার জন্য একটা টিকিট পেয়েছি।

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজিতে পড়া পরিবারের অপর সদস্য বাসনীন বলেন, পরিবারের সবাই প্রথমবার মেট্রোরেলে উঠতে এসেছি। সবাই মিলে ঘুরতে আসলাম। ভালো লাগছে। আজকে আসা ও যাওয়ার টিকিট পাওয়াটা সৌভাগ্যের।

তাজরিয়ার মা বলেন, দেশের বাইরে মেট্রোরেলে ঘুরেছি কিন্তু নিজের দেশের মেট্রোরেলে উঠবো এটা ভিন্ন একটা অনুভূতি।

বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় সাধারণ যাত্রীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে মেট্রোরেল। যাত্রীদের নিয়ে মেট্রোরেল প্রথমবারের মতো সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে উত্তর উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও স্টেশনে উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। ভোর থেকেই দীর্ঘ সারিতে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় সাধারণ যাত্রীদের।

যানজটের নগরী ঢাকায় বহুল কাঙ্ক্ষিত স্বপ্নের মেট্রোরেলের যাত্রা শুরু হয়েছে বুধবার (২৮ ডিসেম্বর)। এদিন বেলা ১১টার পর উত্তরা ১৫ নম্বর সেক্টরের সি-১ ব্লকের খেলার মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নামফলক উন্মোচন করে মেট্রোরেলের উদ্বোধন করেন।

৩৩ হাজার ৪৭১ কোটি ৯৯ লাখ টাকা ব্যয়ে উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত ২১ দশমিক ১৬ কিলোমিটার দীর্ঘ এই মেট্রোরেল নির্মাণকাজ চলছে জাপানের উন্নয়ন সংস্থা জাইকার সহযোগিতায়।

শুরুতে সীমিত পরিসরে উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলে মেট্রোরেল। বৃহস্পতিবার থেকে মেট্রোরেলে যাত্রী পরিবহন শুরু হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের ডিসেম্বর নাগাদ মেট্রোরেলে চড়ে উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত যাতায়াত করা যাবে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা