• বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৯

  • || ০৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

আজকের খুলনা

রোহিঙ্গাদের জন্য তহবিল সংগ্রহ কঠিন হয়ে পড়ছে

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২৬ মে ২০২২  

ইউক্রেন ও আফগানিস্তান সমস্যার কারণে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য তহবিল সংকট করা কঠিন হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরের হাইকমিশনার ফিলিপো গ্র্যান্ডি।

কক্সবাজারের ৯ লাখ ২০ হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থী ও পাঁচ লাখ ৪০ হাজার স্থানীয় জনগণ। প্রায় ১৪ লাখ মানুষের জন্য মানবিক সংস্থাগুলোর প্রয়োজন প্রায় ৮৮১ মিলিয়ন ডলার।

বুধবার (২৫ মে) ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে ফিলিপো গ্র্যান্ডি বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য প্রতি বছর ‌আমরা জেআরপির মাধ্যমে ‌তহবিল সংগ্রহ করি। এবার এখন পর্যন্ত জেআরপিতে ৭৫ শতাংশ তহবিল জোগাড় করা সম্ভব হয়েছে। এরমধ্যে ইউক্রেন, আফগানিস্তানসহ অনেক সমস্যা সামনে চলে এসেছে। এ জন্য ভবিষ্যতে রোহিঙ্গাদের তহবিল কমে যায় কি না, তা নিয়ে আমি বেশ উদ্বিগ্ন।

ফিলিপো গ্র্যান্ডি বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বলতে চাই ‌রোহিঙ্গাদের বোঝা বাংলাদেশ‌‌ পাঁচ বছর ধরে ‌বহন করছে। তাই এই সহযোগিতা অবশ্যই কমানো যাবে না। রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য মানবিক সহায়তা অব্যাহত রাখতে হবে।

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আঞ্চলিক দেশগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ভারত, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়াসহ আসিয়ানভুক্ত দেশগুলোকে এগিয়ে আসতে হবে এবং মিয়ানমারের ওপর তাদের যে প্রভাব আছে সেটি ব্যবহার করে এই সংকট সমাধানে ভূমিকা রাখাতে হবে।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্য দ্বিপক্ষীয় যোগাযোগ রাখা অত্যন্ত জরুরি উল্লেখ করে ফিলিপো গ্র্যান্ডি বলেন, মিয়ানমারের আগের সরকারের সঙ্গে ইউএনএইচসিআরের ‌যে চুক্তি হয়েছিল সেটি বর্তমান সামরিক সরকার ‌কয়েক মাস আগে নবায়ন করেছে। এর ফলে রাখাইনে আমরা প্রকল্পগুলোর কাজ শুরু করতে ‌পারব। তবে রাখাইনসহ সমগ্র মিয়ানমারে কাজ করতে হলে আমাদের অনুমতির প্রয়োজন হবে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা