• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আজকের খুলনা

টাকে চুল গজাতে সময় নেবে মাত্র ৭ দিন, মাখতে হবে ৪ তেল

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২২  

নারী-পুরুষ নির্বিশেষে চুলপড়ার সমস্যায় ভোগেন না এমন মানুষ হাতেগোনা। শীতকালে চুল পড়ার সমস্যা আরও বাড়ে। কখনও কখনও সমস্যা এতটাই বেড়ে যায় যে রীতিমতো টাক পড়ে যায়। কিন্তু শুধু একটু যত্ন এই পরিস্থিতিকে পাল্টে দিতে পারে, এমনকি গজাতে পারে নতুন চুলও!

সত্যিই এমন কয়েকটি তেল আছে, যা স্ক্যাল্পে পুষ্টি জোগায়, চুল পড়া বন্ধ করে এবং চুল গজাতে সাহায্য করে।

চিকিৎসকদের মতে, প্রতিদিন ৫০-১০০টা পর্যন্ত চুল পড়া স্বাভাবিক। তবে মাথার সামনের দিকে ও স্ক্যাল্পে চুলের ঘনত্ব কমে যাওয়া, ভুরুর বা চোখের পাতার চুল পড়া, মাথার খুশকির উৎপাত বৃদ্ধি বা স্ক্যাল্পে ইনফেকশন হলে বুঝতে হবে, আরও সতর্কতা প্রয়োজন।

চলুন জেনে নেয়া যাক, কোন কোন তেল আপনার চুল পড়ার সমস্যাকে কমানোর পাশাপাশি চুল গজাতে সাহায্য করবে।

ক্যাস্টর অয়েল

চুল পড়া রোধের পাশাপাশি চুল গজানোর অব্যর্থ তেল হিসেবে বিশ্বজুড়ে ক্যাস্টর অয়েল ব্যবহৃত হয়ে থাকে। তেলটি চুলের গোড়ায় পর্যাপ্ত পুষ্টির জোগান দেয়ার পাশাপাশি প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে। চুল সুরক্ষায় আপনিও বেছে নিয়ে পারেন এই তেল।

বিশুদ্ধ নারকেল তেলের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে নিন। এটি ভালোভাবে চুলের গোড়ায় ও স্ক্যাল্পে মালিশ করুন। পাশাপাশি লাগান চুলেও। একঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার মাখবেন। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন তেলটি লাগাবেন। সপ্তাহ পার না হতেই নিজেই বুঝবেন উপকারিতা।

নারকেল তেল

চুলের প্রোটিনের ঘাটতি পূরণ করে নারকেল তেল। এতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য বিদ্যমান। এটি রুক্ষ চুলকেও আর্দ্র করে তোলে। তাই সুস্থ চুল পেতে নিয়মিত নারকেল তেল মাখতে হবে। ন্যাশনাল লাইব্রেরি অফ মেডিসিনে প্রকাশিত প্রবন্ধেও এই বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে উল্লেখ করা হয়েছে।

সপ্তাহে তিন দিন পরিমাণ মতো নারকেল তেল চুলের গোড়া ও স্ক্যাল্পে ভালো করে মালিশ করে নিন। দুই ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

আমন্ড অয়েল

আমন্ড অয়েলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই থাকে। যা প্রাকৃতিক অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট হিসেবে কাজ করে। এটি ক্ষতিগ্রস্থ চুলকে ভেতর থেকে সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে। এছাড়া অতিরিক্ত অযত্ন ও আর্দ্রতার অভাবে ক্ষতিগ্রস্ত চুলও দ্রুততম সময়ে সারিয়ে তুলতে পারে আমন্ড অয়েল।

অলিভ অয়েল

খুশকির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অলিভ অয়েল অত্যন্ত কার্যকরী। অলিভ অয়েল স্ক্যাল্পে ডাইহাইড্রোটেস্টোস্টেরন বাইন্ড হতে দেয় না। এই কারণেও চুল পড়া বাড়তে পারে। এটি আপনার চুল পড়া কমায়। এছাড়া নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। চুলও থাকে উজ্জল, স্বাস্থ্যবান। অলিভ অয়েল চুলের গোড়া ও স্ক্যাল্পে ভালো করে মালিশ ২ ঘণ্টার মতো রেখে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ধুয়ে ফেলুন। এই প্রক্রিয়াটিও একদিন পর একদিন করা যেতে পারে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা