• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আজকের খুলনা

বিশ্বের যেকোনা স্থান থেকে হামলা হোক না কেন জবাব দেবে ইরান

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১ অক্টোবর ২০২২  

ইরাকের আধা-স্বায়ত্বশাসিত কুর্দিস্তান অঞ্চলের সন্ত্রাসী ঘাঁটিগুলোতে ইরান সম্প্রতি যে হামলা চালিয়েছে তার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসের কানয়ানি। তিনি বলেছেন, ইরানের জাতীয় নিরাপত্তাকে হুমকিগ্রস্ত করার অপচেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার অধিকার তেহরান সংরক্ষণ করে; তা সেই অপচেষ্টাকারীরা বিশ্বের যেখানেই অবস্থান করুক না কেন। কানয়ানি গত শুক্রবার এক বিবৃতি বলেন, আন্তর্জাতিক আইন এবং জাতিসংঘ ঘোষণা অনুযায়ী নিজের জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষা করার অধিকার ইরানের রয়েছে। ইরাকের কুর্দিস্তানে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলার নিন্দা জানিয়ে পশ্চিমা দেশগুলো যে বিবৃতিতে দিয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করেন কানয়ানি। 

তিনি বলেন, কুর্দিস্তান-ভিত্তিক ওই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো ইরানের ভেতরে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে এবং গোলযোগ ছড়িয়ে দিতে সহযোগিতা করেছে। আমেরিকা ও জার্মানির মতো দেশগুলো যারা কিনা সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে তারাই আবার ইরানের বিরুদ্ধে বিবৃতি দেয়।এসব পশ্চিমা দেশ বিশ্বের স্বাধীন দেশগুলোর অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নির্বিচারে হস্তক্ষেপ করে বলেও অভিযোগ করেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র। সম্প্রতি হিজাব আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে পুলিশের হাতে আটক ২২ বছর বয়সি তরুণী মাহসা আমিনির নিরাপত্তা হেফাজতে অসুস্থ হয়ে পড়া এবং পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যুকে অজুহাত করে  ইরানে দাঙ্গা শুরু করা হয়।পরবর্তীতে সারাদেশে দাঙ্গা ছড়িয়ে দেয়া হয় এবং দাঙ্গাকারীরা সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা, পুলিশের গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্স লক্ষ্য করে হামলা চালায়। ইরাকের কুর্দিস্তান অঞ্চলে ঘাঁটি গেড়ে ইরানের দাঙ্গায় উস্কানি দেয়ার পাশাপাশি ইরানের ভেতরে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ পাঠিয়েছিল সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো। বিশেষ করে কুর্দিস্তানের কথিত কোমালা রাজনৈতিক দল এ কাজে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।

আমেরিকা ও ইহুদিবাদী ইসরাইলের ঘনিষ্ঠ কথিত ওই রাজনৈতিক দল ইরানের অভ্যন্তরে বহু সন্ত্রাসী হামলা ও নাশকতামূলক তৎপরতা চালিয়েছে। এ কারণে কোমালা পার্টির দপ্তরসহ ইরাকের কুর্দিস্তান-ভিত্তিক সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর আস্তানাগুলোতে গত কয়েকদিনে ধারাবাহিক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি। পার্সটুডে

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা