• শনিবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৮

  • || ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

আজকের খুলনা

কিনে সংরক্ষণ করা হলো লাতিন আমেরিকার রেইনফরেস্ট

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০২১  

রেইনফরেস্টকে বলা হয় পৃথিবীর ফুসফুস। কিন্তু উন্নয়ন এবং কৃষি কাজের জন্য ধারাবাহিকভাবে প্রতিনিয়ত প্রাণিবৈচিত্রের এই  বন উজাড় করা হচ্ছে,  যা এর অস্তিত্বের জন্য এর জন্য হুমকিস্বরূপ। ২০১০ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত এক দশকে দক্ষিণ আমেরিকায় প্রতি বছর ২৬ লাখ হেক্টর করে বন হারিয়েছে। 

তবে সুখবর হচ্ছে, এই উজার হওয়ার হারে লাগাম টানার চেষ্টা করছে কিছু সংগঠন। সম্প্রতি রেইনফরেস্টের একটি অংশকে এই পরিণতি থেকে মুক্তি দিতে পরিবেশ সংরক্ষণ বিষয়ক কয়েকটি সংস্থা ৯৫ হাজার হেক্টর জমি কিনে নেয়। কয়েকটি সংগঠন মিলে তৈরি করেছেন ফরেস্টল্যান্ড গ্রুপ। মূলত তারাই একটি গাছ কাটা প্রতিষ্ঠান থেকে বিশাল সংখ্যক জমি কিনে নেয়। ওই অংশের তারা নাম দেন ‘বেলিজ মায়া ফরেস্ট’। এলাকাটি জাগুয়ার, স্পাইডার মাংকি এবং পুমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ আবাসস্থল। 

বেলিজ এনভায়রনমেন্টাল রিসার্চ ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞান বিষয়ক পরিচালক বলেন, ‘যদি এই এলাকাটি কেনা না হতো, তাহলে যান্ত্রিক কৃষি এবং গবাদি পশু পালনের জন্য পুরো বন উজাড় করা হতো।’ "বেলিজ মায়া ফরেস্ট " সুরক্ষিত করার এই কর্মসূচি ভবিষ্যতে আশপাশের অঞ্চলের ফসল উৎপাদনকেও টেকসই করে তুলবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। 

প্রসঙ্গত এই এলাকার রুক্ষতার কারণে দীর্ঘদিন এখানে কোনো জনবসতি ছিল না।  তবে এই অঞ্চলটি পর্যটক আকর্ষণ করবে বলে আশা করছেন স্থানীয় গোষ্ঠীগুলোর সঙ্গে পরামর্শক যোগ দেওয়া দলের প্রধান।  তিনি বলেন, এই অঞ্চলের সবচেয়ে বিস্ময়কর বিষয়গুলোর মধ্যে রয়েছে সেনোটস এবং মায়া সংস্কৃতির কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে পরিচিত প্রাকৃতিক জলের পুল।

এই রেইন ফরেস্ট সংরক্ষণকারীরা একইরকম আরও একটি প্রকল্প হাতে নেওয়ার কথা জানিয়েছেন।  "বেলিজ মায়া ফরেস্ট " এর পাশেই ১২ হাজার৪০ হেক্টর আয়তনের করিডরকেও একইভাবে কিনে সংরক্ষণ করবেন বলে তারা জানিয়েছেন। এই করিডোরটি গুয়াতেমালা আদিম বন ও পাহাড়ের সংযোগস্থল হিসেবে পরিচিত।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা