• শনিবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৮

  • || ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

আজকের খুলনা

ধর্মাবলম্বীদের উত্তেজিত করার মাস্টার মাইন্ড উত্তম মজুমদার আটক

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২৮ অক্টোবর ২০২১  

খুলনায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উত্তপ্ত করতে কুমিল্লার মন্দিরে অপ্রীতিকর ঘটনা ছড়িয়ে দিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের উদ্দেশ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিভ্রান্তিকর পোস্ট করার অপরাধে উত্তম মজুমদার (৩১) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৬।

কুমিল্লার মন্দিরে অপ্রীতিকর ঘটনা ছড়িয়ে দিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের মাধ্যমে নিজের ক্ষোভ মেটাতে চেয়েছিল উত্তম মজুমদার। উত্তম মনে করতো দেশে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা নির্যাতিত। তাই সে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেজ এ বিভ্রান্তিকর ও উগ্রবাদী বিভিন্ন পোস্ট করতো। বিষয়টি র‍্যাব-৬, খুলনার নজরে এলে সাইবার অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‍্যাব-৬ (স্পেশাল কোম্পানি) খুলনার একটি আভিযানিক দল কেএমপি খুলনার লবণচরা থানাধীন খুলনা টু সাতক্ষীরা হাইওয়ে সড়কের পাশে বোখারীয়া জামে মসজিদের সামনে পাঁকা রাস্তার (কালভার্ট) উপর থেকে সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুক পেজ এ মিথ্যা অপপ্রচার করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট ও জনমনে বিভ্রান্তি ছড়ানোর দায়ে ফেসবুক পেজ এর এডমিন উত্তম মজুমদার (৩১) কে গ্রেপ্তার করে।

র‍্যাব-৬, খুলনার সাইবার টিম সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম পর্যবেক্ষণ করে দেখেন যে, কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে কিছু ব্যক্তি বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার নিমিত্তে মিথ্যা ও উস্কানিমূলক বক্তব্য পোস্ট করে আসছে এবং সমাজে ওই পোস্টের মাধ্যমে বিশৃঙ্খলাসহ জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। এছাড়াও একটি স্বার্থান্বেষী মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন গুজব ও মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করে সহিংসতার ইন্ধন দিয়ে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার রাত সোয়া ৯টার দিকে র‍্যাব-৬ (স্পেশাল কোম্পানি) খুলনার একটি আভিযানিক দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা অপপ্রচার ও উস্কানি দেওয়ার জন্য ফেসবুক এডমিন উত্তমকে গ্রেপ্তার করা হয়। উত্তম বাগেরহাট জেলার চিতলমারি থানার অশোক নগর গ্রামের অমল মজুমদারের ছেলে।

গ্রেপ্তারের সময় তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে উত্তম সাইবার অপরাধের সঙ্গে তার সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করেছে। উত্তম মজুমদার বরিশাল বিএম কলেজ থেকে এমএ সম্পন্ন করে খুলনায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করে আসছিলো। গত ১৩ অক্টোবর হতে উত্তম মজুমদার (৩১) তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে বিভিন্ন উস্কানিমূলক বক্তব্য পোস্ট করে আসছিলো। সে নিজে ওই পেজের এ্যাডমিন এবং তার সমমনা আরও কয়েকজন ব্যক্তিকে এডমিন হিসেবে নিযুক্ত করে। খুব দ্রুতই ওই পেজের সদস্য ও ফলোয়ার কয়েক হাজার ছাড়িয়ে যায়। এই ফেসবুক পেজ থেকে কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মিথ্যা তথ্য প্রচার এবং উস্কানিমূলক পোস্ট প্রদান করা হচ্ছিলো এবং বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট ও সহিংসতা বিস্তার করার অপতৎপরতা চলছিলো। ওই ফেসবুক পেজে পার্শ্ববর্তী দেশসমূহে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন নৃশংস ঘটনার ভিডিও আপলোড করে জনমনে ভয়-ভীতি তৈরিসহ উস্কানি প্রদান করা হচ্ছিলো। অভিযুক্ত উত্তম মজুমদার প্রতিটি পোস্ট হ্যাশট্যাগ করে এই দেশকে একটি সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিলো।

প্রাথমিকভাবে উত্তম মজুমদার (৩১) এর কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি। উত্তম মজুমদার এর মনে হতো এই দেশে হিন্দু সম্প্রদায় নির্যাতিত। তাই তাদের নিয়ে নেতিবাচক ও বিভ্রান্তিকর পোস্ট করলে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের মাধ্যমে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা উত্তপ্ত হবে। আইন শৃংখলা বাহিনী ও মিডিয়া নিরব আছে মর্মে এটাই তার মোটিভ ছিলো বলে ধারণা করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামী উত্তম মজুমদার (৩১) কে কেএপি খুলনার লবণচরা থানায় হ্স্তান্তর করতঃ তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা রুজু করা হয়। সূত্র : প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা