আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
শনিবার সমাবেশের ঘোষণা জাবি আন্দোলনকারীদের খুলনায় ঘের ব্যবসায়ীকে হত্যার ঘটনায় ৩ জন আটক জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব ঢাকায় আসছেন আগামীকাল মাদারীপুর আদালতে জামিন পেলেন শামসুজ্জামান দুদু আফগানিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ যশোরে নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, থানায় মামলা আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে বিএনপি : কাদের অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত

বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
খুলনায় প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নে বিভিন্ন স্কুলের মানববন্ধন ডিআইজি পার্থ’র মামলার প্রতিবেদন ২৮ জানুয়ারি শিক্ষা অধিদপ্তরের ঠিকাদারের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা খুলনায় নৌ অঞ্চলে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উদযাপিত নওগাঁয় ইজিবাইক চালক হত্যা মামলার ৫ আসামি গ্রেফতার খুলনায় দুর্নীতি বিরোধী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত সাভারে ২০ লাখ টাকার নকল প্রসাধনী জব্দ ডিসেম্বরে আসছে ড্রিমলাইনার সোনার তরী ও অচিন পাখি খুলনায় কর মেলায় ৫৭ কোটি ৬৭ লাখ টাকা আদায়
১২

হাসপাতালের রাস্তা ব্যবসায়ীদের দখলে, পথচারীরা বিপাকে

ঢাকা অফিস

প্রকাশিত: ৩১ অক্টোবর ২০১৯  

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের রাস্তার বেশির ভাগ অংশ ব্যবসায়ীরা দখল করে দোকান নির্মাণ করায় প্রতিনিয়ত বিপাকে পড়তে হচ্ছে পথচারীদের। রাস্তার দু’ পাশে রেলের জমি। ওই সব ব্যবসায়ীরা রেল কোম্পানীর নিকট থেকে জমি বন্দবস্ত এনে এই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। ওই জমিতে দোকান ঘর উত্তোলন করার সময় পাকা রাস্তার ঢালু পর্যন্ত দখল করে ঘর ও ঘরের বারান্দা নির্মাণ করেছেন ব্যবসায়ীরা। 

প্রধান ফটক দিয়ে প্রবেশ করার সময় দূরদূরান্ত থেকে আসা রোগীদের পড়তে হচ্ছে বিড়ম্বনায়। হাসপাতালের প্রবেশ পথের এসব দোকানের কারণে ঘটছে দুর্ঘটনা। নষ্ট হচ্ছে হাসপাতালের সৌন্দর্য। দোকান মালিকরা রাস্তা দখল করে দোকানপাট বসানোর কারণে এবং রাস্তার পরিধি ছোট হওয়াতে হাসপাতালে প্রবেশ করার সময় অ্যাম্বুলেন্সসহ যাবতীয় যানবাহন চলাচলও বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।

বোয়ালমারী আখ সেন্টার হতে হাসপাতালের প্রধান গেট পর্যন্ত দখল করে দোকানপাট বসেছে। হাসপাতালে প্রবেশের রাস্তার দু’পাশ দিয়ে রয়েছে ফার্মেসী, পান সিগারেটসহ বিভিন্ন পণ্যের দোকান। এ দোকানগুলো রাস্তার অর্ধেক দখল করে আছে। এতে হাসপাতালে একদিক থেকে রোগীর গাড়ি ঢুকলে অপরদিক থেকে কোনো যানবাহন বাইরে বেরোতে পারে না। এমনকি রাস্তা দখল করে দু’ধারে দোকানপাট বসার কারণে যানবাহন হাসপাতালে ঢোকার সময় পায়ে হেঁটেও ওই রাস্তায় যাওয়া যায় না। এতে প্রতিনিয়ত হাসপাতালের সামনেই ঘটে ছোট খাটো দুর্ঘটনা। অনেক অভিভাবক হাসপাতালে রোগী দেখতে এসে দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে তাকে বাড়ি ফিরতে হয়। 

অপরদিকে, হাসপাতালের বন্ধ গেটের সামনে তাবু ফেলে বসেছে চায়ের দোকান। ওই গেটটির রাস্তা বেদখল হয়ে রয়েছে। যার কারণে ওই গেটটি কখনও খোলা হয় না। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন রোগীর স্বজনেরা। রাস্তাটির পাশে বিভিন্ন ধরনের দোকান, রিকশা, অটোরিকশার দখলে থাকায় হাসপাতালে জরুরিভাবে ঢোকাই দুরূহ হয়ে পড়েছে। হাসপাতালের মূল ফটক দিয়ে ২৪ ঘণ্টাই চলাচল করেন রোগীর স্বজনেরা। রোগীর জন্য জরুরিভিত্তিতে ওষুধ, খাবারসহ অন্যান্য দ্রব্য নিয়ে আসতে তারা ফটকের মূল গেট ব্যবহার করেন। কারণ হাসপাতালের পকেট গেটটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করে রাখা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে হাসপাতালে রোগী নিয়ে আসা একাধিক যানবাহন চালক বলেন, রোগী নিয়ে হাসপাতালের রাস্তায় প্রবেশ করা কষ্ঠসাধ্য হয়ে পড়েছে। মাইক্রোবাসে রোগি নিয়ে হাসপাতালের রাস্তায় ঢুকলে অপরদিক থেকে কোন যানবাহন আসলে ওভারটেক করা যায় না। আমাদেরকে পড়তে হচ্ছে সমস্যায়। প্রতিটি দোকান ঘর যদি পাকা সড়ক থেকে ২ হাত সরিয়ে ফেলে তা হলে কোন সমস্যা হয় না। 

বিষয়টি স্বীকার করে পৌর মেয়র মোজাফফর হোসেন মিয়া বলেন , আমি খুব দ্রুতই হাসপাতালের রাস্তায় ইঞ্জিনিয়ার পাঠিয়ে রাস্তা ফাকা করার ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।  

সদ্য যোগদানকৃত উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঝোটন চন্দ বলেন, ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর