আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
কুমিল্লায় জাতীয় পার্টির সভায় দফায়-দফায় সংঘর্ষ, সাবেক এমপিসহ আহত ১০ আমিরাতের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করলেন প্রধানমন্ত্রী পর্যাপ্ত টেস্ট না খেলা ব্যর্থতার কারণ : মুমিনুল পেঁয়াজ ছাড়াও রান্না সুস্বাদু হয়, গণভবনে পেঁয়াজ ছাড়াই রান্না হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী ভারতের বিপক্ষে টেষ্টে বাংলাদেশ আশার চেয়েও খারাপ খেলেছে : পাপন খুলনার বড়বাজারে অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় আড়তদারকে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা ইমার্জিং এশিয়া কাপ ক্রিকেটে ভারতকে হারাল বাংলাদেশ সুন্দরবনে অপহৃত দশ শ্রমিক উদ্ধার, আটক এক

রোববার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২ ১৪২৬   ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
৪ দিনের সফরে দুবাইয়ের পথে প্রধানমন্ত্রী উল্লাপাড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে : রেলমন্ত্রী খুলনায় তৃতীয় দিনে ২ কোটি ৯০ লাখ টাকা কর আদায় মিসর থেকে পিয়াজের প্রথম চালান পৌঁছাবে মঙ্গলবার সুন্দরবনে শিশুসহ ১০ শ্রমিক উদ্ধার, আটক ১ নোবিপ্রবিতে গাঁজা সেবনকালে ৩ ছাত্রী আটক
২৭

সুখে-দুঃখে সবচেয়ে কাছের বন্ধু কিন্তু আপনার ভাই

ডেস্ক রিপোট

প্রকাশিত: ২৯ অক্টোবর ২০১৯  

মনে করেন, আপনাদের বাবা ৬ কাঠা জমির ওপর একটা বাড়ি করেছিলেন। আপনারা দুই ভাই। একসঙ্গে বড় হয়েছেন, একসঙ্গে আপনাদের মা হাতে তুলে খাইয়ে দিয়েছেন, একসঙ্গে স্কুলে গিয়েছেন, কলেজে গিয়েছেন। এখন কি এমন হলো যে, বাবার সেই ৬ কাঠা জমি ৩ কাঠা করে ভাগ করে নিয়ে দুইটা বাড়ি করে আলাদা থাকতে হচ্ছে, খেতে হচ্ছে?

কিংবা মনে করুন, আপনার বাবার ২ বিঘা চাষাবাদের জমি আছে। আপনারা দুই ভাই সেই জমির অংশীদার। শহরে থাকেন। গ্রামে কেউ নেই। আপনাদের জমি অন্যের কাছে বর্গা দিতে হয়। অথচ আপনারা একসঙ্গে বর্গা না দিয়ে, যে যতটুকু জমি ভাগে পেয়েছেন, সে তার মত একেকজনকে জমি বর্গা দিয়ে দিচ্ছেন। আপনাদের জমি আইল দিয়ে আলাদা করে চাষ করা হচ্ছে। লেখাপড়া শিখে আপনারা কত বিবেকবান হয়েছেন, সেটাই এখন সকলকে দেখিয়ে দিচ্ছেন।

পার্থিব সম্পত্তির কারণে ভাইয়ে ভাইয়ে ভুল বোঝাবুঝি হবে, সেটাই মেনে নেওয়া যায় না। সেখানে মারামারি, খুন, জখমের বিষয়তো কল্পনাতেও আনা উচিত না। অথচ সেটাই এখন হচ্ছে। ভাইদের সমস্যা সমাধানে এলাকায় সালিশ বসাতে হয়। ভাইদের নিজেদের ভুলের বিচার করে গ্রামের মাতব্বর কিংবা পাড়ার ক্ষমতাশালী ব্যক্তিবর্গ। 

ভাইয়ে ভাইয়ে অমিল হবে কেন? সামান্য স্বার্থের কারণে এক ভাই অন্যজনের মুখ দেখা বন্ধ করে দেয়। মনে হয়, মৃত্যুর পর কবরে নিয়ে যাবে স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি। একটু মেনে নেয়ার ইচ্ছা যদি প্রতিটা ভাইয়ের মধ্যে থাকত, তবে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটত না। কিছু যদি বেশি পায়, তবে সেটাতো আপনার ভাই পেল। 

একটু মনে করার চেষ্টা করুন, ছোট থাকতে এক ভাই অন্যজনের গলা ধরে ঘুমিয়ে থাকতেন। তাহলে বড় হয়ে কেন পারছেন না, বুড়ো হয়ে কেন পারছেন না? সুখে-দুঃখে সবচেয়ে কাছের বন্ধু কিন্তু আপনার ভাই। 

খুব ছোট থাকতে দেখতাম, যাদের পিঠাপিঠি দুই/তিন ভাই থাকত, তাদের সঙ্গে পাড়ার কেউ মারামারি করতে যেত না। কারণ কোন একজনকে মারলে, অন্য ভাইরা মিলে সেই ছেলেটিকে মারত। তবে সেসব মারামারি মারাত্মক কিছু ছিল না।

ভাইয়ের চেয়ে কেউ আপন হয় না। সম্পর্ক সেই আট-দশ বছর বয়সে যেমন ছিল, ঠিক সেই রকম রাখেন সারাজীবন। এক ভাই অন্য ভাইয়ের কাছে কখনো বড় হবেন না। ছোটদের মত দুষ্টুমি করুন। ভাইদের মধ্যে কোন মধ্যস্থকারী থাকতে দেবেন না। একজন অন্যজনকে বকা দেবেন, রাগারাগি করবেন, আবার একসঙ্গে খেতে বসবেন। ভাইয়েরা এক থাকলে, পৃথিবী হাতের মুঠোয় থাকবে। কেউ চোখ রাঙিয়ে কথা বলার সাহস পাবে না।

লেখক : রিয়াজুল হক, উপ-পরিচালক, বাংলাদেশ ব্যাংক।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর