আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
বিমানের আধুনিকীকরণে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী দুই মাসে ফিটনেস নবায়ন করেছে ৮৯ হাজার ২৬৯টি গাড়ি

বুধবার   ২৩ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৮ ১৪২৬   ২৩ সফর ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
তালায় মৎস্য ঘের থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার বৃহস্পতিবার আজারবাইজান যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
২৫

সব বয়সী মানুষের জন্য রাস্তাটি বিপজ্জনক

ঢাকা অফিস

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

নির্মাণের দীর্ঘ ১৭ বছর পেরুলে ও সংস্কার হয়নি মির্জাগঞ্জের চরখালী এলাকার ইট সলিং রাস্তাটি। ফলে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে ওই এলাকার কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ হাজারও গ্রামবাসী। উপজেলার দেউলী সুবিদখালী ইউনিয়নের চরখালী বাজার থেকে পশ্চিম দিকে উত্তর রানীপুর পর্যন্ত প্রায় ৭ কি. মি. রাস্তা বেহাল। ২০০২ সালে রাস্তাটি নির্মিত হয়েছিল বলে এলাকাবাসী জানান। এর পরে আর কোনো সংস্কার বা নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি। ইটের গাঁথুনি দিয়ে নির্মিত হওয়া রাস্তাটি বর্তমান সময়ে তৈরি হয়েছে মৃত্যুকূপে।

বর্ষাকালে গর্তে জমে থাকে পানি, ভারি যান চলাচলের কোনো সুযোগ নেই। রিকশা কিংবা মোটরসাইকেল নিয়েও বিড়ম্বনায় পড়তে হয় এলাকাবাসীকে। পুরোটা বছর ভোগান্তি পোহাতে হয় স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের। কোনো প্রসূতি মহিলা কিংবা বৃদ্ধ কোনো মানুষের জন্য রাস্তাটি বিপজ্জনক। কোনো মুমূর্ষু রোগীকে অতি দ্রুত হাসপাতালে নেওয়ার জন্য অনুপযোগী রাস্তাটি। অ্যাম্বুলেন্স বা মিনি মাইক্রোবাস চলার কোনো জায়গা নেই। তাছাড়া মূল সড়কে উঠার একমাত্র ভরসা এই রাস্তাটি। বিকল্প কোনো ব্যবস্থা নেই। তাই বাধ্য হয়ে ঝুঁকি নিয়ে এই সড়ক দিয়ে চরখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরখালী সমবায় মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও উত্তর রানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় কয়েকশ’ শিক্ষার্থী নিয়মিত যাতায়াত করে।

চলাচল করছে ওই এলাকার চরখালী, উত্তর রানীপুর, চত্রা, তেয়ানীসহ ৫ গ্রামের প্রায় হাজার হাজার মানুষ। এই সড়কটি এলাকাবাসীর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সড়কটি সংস্কার অতীব জরুরি বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। চরখালী গ্রামের নিজাম উদ্দিন জানান, রাস্তাটি সংস্কার এখন গ্রামের প্রতিটি মানুষের প্রাণের দাবি। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. বাদশাহ জানান, রাস্তাটি সংস্কার হলে মানুষের যাতায়াত সুবিধার পাশাপাশি দীর্ঘ দিনের ভোগান্তি অনেকটা লাঘব হবে এবং এর পাশাপাশি দীর্ঘ গতি সম্পন্ন জনপদটির যাত্রা আরো গতিশীল হবে।

তাই এলাকাবাসীর যোগাযোগের সুবিধার্থে যত দ্রুত সম্ভব রাস্তাটি সংস্কার করা প্রয়োজন। উপজেলা চেয়ারম্যান খান মো. আবু বকর সিদ্দিকী বলেন, রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করতে ওই এলাকার শিক্ষার্থীসহ ৫ গ্রামবাসীর দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। রাস্তাটি সংস্কারের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে জানানো হবে। রাস্তাটি সংস্কারের ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী মো. শেখ আজিজুর রশীদের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, রাস্তাটি সংস্কারের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে। বরাদ্দ পেলে রাস্তাটি সংস্কারের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর