• মঙ্গলবার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৭ ১৪২৭

  • || ০৪ সফর ১৪৪২

আজকের খুলনা
২৯

রিয়াকে ঘিরে বাঙালি মেয়েদের চরম হেনস্থা নেটপাড়ায়

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ৪ আগস্ট ২০২০  

রিয়া চক্রবর্তীর তুলনা টেনে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমাগত কুরুচিকর আক্রমণ করা হচ্ছে বাঙালি মেয়েদের। আগেই এর প্রতিবাদে সরব হয়েছেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় থেকে শুরু করে অভিনেত্রী-সাংসদ নূসরত জাহান। এবার বাঙালি মেয়েদের অনলাইনে হেনস্থার ঘটনায় তদন্তে নামল কলকাতা পুলিশ।

বলিউড তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যর সঙ্গে নাম জড়িয়ে গিয়েছে তাঁর বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর। রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা। তাঁর ছেলের মৃত্যুর জন্য রিয়া ও তাঁর পরিবার দায়ী বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। তারপর থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় একাংশের তীব্র কুরুচিকর আক্রমণের মুখে বাঙালি মেয়েরা। সব বাঙালি মেয়েদের উদ্দেশ্যেই ব্যবহার করা হয়ে চলেছে আপত্তিকর নানা শব্দ। বাঙালি মেয়েরা 'কালো জাদু' জানে, তারা 'বড় মাছ' ধরতে ভালোবাসে। বাঙালি মেয়েরা 'gold digger', এরকম নানা আপত্তিজনক ভাষায় ক্রমাগত আক্রমণ চলছে বাঙালি মেয়েদের প্রতি।

বাঙালি মেয়েদের দিকে তাক করে অশালীন মন্তব্য করে অবাঙালি মেয়েরাও। এক নেটিজেনের বক্তব্য, “বাঙালি মেয়েদের থেকে একটু সামলেই থেকো। ওরা ছলে, বলে-কৌশলে খুব ভালই ছেলেদের হাত করতে জানে। নিজে যদি সারাজীবনের জন্য কোনও বাঙালি মেয়ের চাকর কিংবা ক্রেডিট কার্ড হতে চাও, অথবা নিজের পরিবারকে পুরোপুরি ছাড়তে চাও, তাহলে নিজের ইচ্ছেয় যাও!”

এসব দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে প্রতিবাদ। লেখিকা সঙ্গীতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রতিবাদ করেছেন। প্রতিবাদ করেছেন সাধারণ মানুষও। পাশাপাশি প্রতিবাদের তীব্র স্বর শোনা গিয়েছে অভিনেত্রী তথা সাংসদ নুসরত জাহান এবং সুশান্তের শেষ ছবি 'দিল বেচারা'য় সুশান্তের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করা স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের কাছ থেকেও।

বরখা ত্রেহান নামের এক ট্যুইটার ব্যবহারীকে নূসরত লেখেন, 'যদি না আপনি টুপ করে পৃথিবীতে ঝরে পড়ে থাকেন, তাহলে আপনার জন্য দুটো কথা বলি। বাংলা বিখ্যাত তার ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতির জন্য। সারা বিশ্ব বাংলাকে চেনে রবীন্দ্রনাথ আর সত্যজিৎ রায় এর জন্য। যান, এবার আপনাকে বিখ্যাত করে দিলাম'। এরপর তিনি আবার লেখেন, 'বাঙালিরা দারুন রান্না করে। বাঙালিদের রান্নার খ্যাতি বিশ্বজোড়া। আমি নিশ্চিত মাছ-মশলা-মিষ্টি নিয়ে আপনি কিছুই জানেন না'।

নুসরতকে সোশ্যাল মিডিয়ায় সাপোর্ট করেছেন প্রচুর মানুষ। সাংসদ অভিনেত্রী এরপর লেখেন, 'আইন ও মানবতার বিরুদ্ধে কোনও কিছুই আমি সমর্থন করি না। আমি জানি, যাঁদের উপর দায়িত্ব রয়েছে তাঁরা খুবই গুরুত্বের সঙ্গে তাঁদের কাজ করছেন। নিশ্চয় সব সত্য সামনে আসবে। কিন্তু আমাদের সংস্কৃতির বিরুদ্ধে কেউ কিছু বললে আমি তা সমর্থন করব না। একজন বাঙালি হিসেবে আমি গর্বিত'।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বাঙালি মেয়েদের প্রতি কদর্য আক্রমণে প্রতিবাদে স্পষ্টভাষী স্বস্তিকা লেখেন, 'আমি তো রুই বা ভেটকি ভালবাসি। এরপর সরষের তেলে ভাল করে ভেজে গরম ভাতে কাঁচালঙ্কা দিয়ে খেতে ভালবাসি। বাঙালি মেয়েরা কেউ আছো? আমার সঙ্গে যোগ দিতে চাও?'

অনেকেই এই অশালীন আক্রমণের প্রতিবাদে রাজ্য মহিলা কমিশনে অভিযোগ দায়ের করেন। তারপরই রাজ্য মহিলা কমিশনের তরফে কলকাতা পুলিশের সাইবার সেলে অভিযোগ জানানো হয়। গোটা বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জয়েন্ট সিপি ক্রাইম মূরলীধর শর্মা। সোশ্যাল মিডিয়ায় যে সব অ্যাকাউন্ট থেকে কদর্য আক্রমণ ভেসে আসছে, সেই সব অ্যাকাউন্টগুলি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে কলকাতা পুলিশ।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
বিনোদন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর