আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
বাঁশে ঝুলিয়ে যুবককে নির্যাতন, সালাম মেম্বারসহ আটক ৫ আলহাজ্ব টেক্সটাইলের পরিচালককে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা রাজধানীতে র‌্যাবের অভিযানে এক জঙ্গি আটক অর্থ আত্মসাত: রাজশাহী শিল্পকলার সাবেক নৃত্য প্রশিক্ষক গ্রেপ্তার পরিবহণ শ্রমিকদের কাজে ফেরার নির্দেশ শাজাহান খানের শনিবার সমাবেশের ঘোষণা জাবি আন্দোলনকারীদের খুলনায় ঘের ব্যবসায়ীকে হত্যার ঘটনায় ৩ জন আটক জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব ঢাকায় আসছেন আগামীকাল মাদারীপুর আদালতে জামিন পেলেন শামসুজ্জামান দুদু আফগানিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

শুক্রবার   ২২ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬   ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
শনিবার আত্মসমর্পণ করবে কক্সবাজারের শতাধিক জলদস্যু গাঙ্গুলির নিমন্ত্রণে কলকাতা পৌঁছেছেন সাবেক ক্রিকেটাররা খুলনায় প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নে বিভিন্ন স্কুলের মানববন্ধন ডিআইজি পার্থ’র মামলার প্রতিবেদন ২৮ জানুয়ারি শিক্ষা অধিদপ্তরের ঠিকাদারের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা খুলনায় নৌ অঞ্চলে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উদযাপিত নওগাঁয় ইজিবাইক চালক হত্যা মামলার ৫ আসামি গ্রেফতার খুলনায় দুর্নীতি বিরোধী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত
৬০

যশোরে শিশু ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

যশোর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৬ নভেম্বর ২০১৯  

যশোরে চাঞ্চল্যকর ছয় শিশুকে ধর্ষণ মামলার আসামি আমিনুর রহমানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। 

আজ বুধবার দুপুরে যশোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক টিএম মুছা এ দণ্ডাদেশ দেন। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে যশোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি এম ইদ্রিস আলী জানিয়েছেন, মাত্র ছয় মাসে আলোচিত এ ঘটনার বিচার সম্পন্ন হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত আমিনুর এখন কারাগারে রয়েছেন। 

পিপি এম ইদ্রিস আলী বলেন, সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার গড়িমহল গ্রামে হানেফ আলীর ছেলে আমিনুর যশোর শহরের খড়কি দক্ষিণপাড়া রেল লাইনের পাশে এহসানুল হক সেতুর বাগান বাড়ির তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্বে ছিলেন। স্থানীয় মাওলানা শাহ আব্দুল করিম (রহ.) খড়কী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের যাওয়া-আসার পথে ছোট ছেলেমেয়েরা সেতুর বাগানবাড়িতে আম কুড়াতে যেত। ওই সময় কেয়ারটেকার আমিনুর  প্রথমে তিনটি শিশুকে ধর্ষণ করেন। বিভিন্ন সময়ে একে একে ছয় ছাত্রীকে ওই গোলপাতার ঘরের মধ্যে নিয়ে ধর্ষণ করেন তিনি। 

এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে বিচার হয়। এক পর্যায়ে অভিভাবকরা গত ১ মে কোতোয়ালি মডেল থানায় অভিযোগ দেন। এতে তার বিরুদ্ধে থানায় নিয়মিত মামলা হয়। 

আটকের ভয়ে আমিনুর বেনাপোলে পালিয়ে চলে যান। সেখান থেকে ৪ মে আমিনুরকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ। 

এরপর আমিনুর বিভিন্ন সময় ৫/৬ জন শিশুকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। 

পাশাপাশি যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ওই ছয় শিশুর মধ্যে চারজনের ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়। 

আর ছয়জনই সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুসরাত জাবীন মিন্নির আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেয়। 

মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বুধবার আমিনুরকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত। 

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর