আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
পিরোজপুরে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু ঠাঁকুরগায়ে ঠান্ডাজনিত রোগে ৩ শিশুর মৃত্যু, হাসপাতালে শতাধিক শিশু বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ৩০ টি কুকুর উপহার দিল ভারত রাজধানীতে ২টি চলন্ত বাসে আগুন এসএ গেমসে ভারোত্তোলন ৯৬ কেজি শ্রেণীতে স্বর্ণপদক জিতলেন জিয়ারুল ইসলাম দুই লঞ্চের সংঘর্ষ : ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন এসএ গেমসে ভারোত্তলনে স্বর্ণ জিতলেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত খুলনায় বোমা বিস্ফোরণ : আইএস’র দায় স্বীকার

শনিবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৬   ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
সিদ্ধিরগঞ্জে ২৮ কেজি গাঁজাসহ এক জন আটক বরিশালে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আটক ১ সপ্তম স্বর্ণ উপহার দিলেন ফেন্সিংয়ের ফাতেমা আসন্ন মুজিব বর্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘ডক্টর অব লজ’ ডিগ্রি প্রদান করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি, আটক ২ মেহেরপুরে ৮ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারি আটক
৫০৭

মৌলিক গান নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই

ঢাকা অফিস

প্রকাশিত: ৩০ জানুয়ারি ২০১৯  

টুম্পা খান সুমী- এই প্রজন্মে জনপ্রিয় নাম। ‘অপরাধী’ কভারড গান দিয়ে আলোচনায় আসলেও গান গাওয়ার স্বপ্নটা সেই ছোট্ট থেকেই। ক্লোজআপ ওয়ানসহ বিভিন্ন সঙ্গীত প্রতিযোগিতা প্লাটফর্মে অংশ নিয়ে নিজেকে মেলে ধরেছেন বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের এই ছাত্রী। গাজী টায়ার্স-এর ‘এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ক্যাম্পেইনে জয়ী হয়েছিলেন গত ফেসবুক ও ইউটিউবে অপরাধী ভাইরালের পর থেমে নেই তরুণ এই শিল্পী। মৌলিক গান নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে স্বপ্নযাত্রায়। বর্তমান ব্যস্ততা ও ভবিষ্যত পরিকল্পনাসহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেছেন এই সময়ের জনপ্রিয় শিল্পী টুম্পা।
 

পড়াশুনা কেমন চলছে?

টুম্পা: ইনশাআল্লাহ ভালোই চলছে সবার দোয়ায়।

গানের জগতে পা কিভাবে?

টুম্পা: আমার বাড়ি মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে। ছোটবেলা থেকে গান শুনি। শুনে শুনেই গান গাওয়া শুরু। সিরাজদিখানে গান শেখার তেমন ব্যবস্থা ছিল না। ফলে গান শেখার তেমন সুযোগ ছিল না। তবে স্থানীয় একজনের কাছ থেকে কিছুদিন তালিম নিয়েছি। ইউটিউব থেকে গিটার বাজানো কিছু কৌশল জেনেছি। পরবর্তীতে গিটার নেভার লাইজ (জিএনএল) স্কুল থেকেও গিটার বাজানো শিখেছি।

পরিবার কি অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে?
 

টুম্পা: আমি সত্যি অনেক ভাগ্যবান যে আমার বাবা-মা আমাকে প্রতিনিয়ত উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন। আমার জন্য অনেক কষ্ট করছেন।

গানের রাজ্যে এখন কেমন চলছে?

টুম্পা:  চলছে আলহামদুলিল্লাহ। কাভারড গানের পাশাপাশি মৌলিক গান নিয়েও কাজ করছি। কেননা যারা আমাকে অনুপ্রেরণা যোগান, সাহস দেন তারা আমার মৌলিক গানও শুনতে চান। তাদের জন্যই সম্প্রতি রেকর্ডিং শেষ করলাম ফোকগান ‘দুঃখ বন্ধু’।

সাইন্ডটেকের ব্যানারে প্রকাশিত হবে মিউজিক ভিডিওটি। সৌমিত্র ঘোষের পরিচালনায় গানের কথা ও সুর করেছেন কবীর বকুল। এরআগে আজব রেকর্ডস-এর ব্যানারে ’অষ্টপ্রহর’ শিরোনামে গাওয়া গানটি লিখেছেন সারাজাত সৌম। সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন ফরহাদ।

সিনেমায় প্লেব্যাক; কিভাবে দেখছেন?

টুম্পা: এটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো। এভাবে প্লেব্যাকের সুযোগ পাব কখনো ভাবিনি। এর পুরো কৃতিত্ব শ্রোতাদের, যারা আমার গান ভাইরাল করেছেন। এতো অল্প বয়সে সেই সুযোগ পাওয়াটা অনেক আনন্দের। সঙ্গীতশিল্পী কিশোরের সঙ্গে গাওয়া 'ও মাই লাভ' গানটির কথা লিখেছেন কবির বকুল, সুর ও সঙ্গীত আলী আকরাম শুভ’র। আশাকরি, ভালো সুযোগ পেলে ভবিষ্যতও চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করে যাবো।

তপু’র সঙ্গেও গান করেছেন নাকি?

 টুম্পা: “গিটার শেখার পর তপু ভাইয়ার ‘একটা গোপন কথা’ গানটির সুরই প্রথম তুলেছিলাম। সেই গানই তার সঙ্গে গেয়েছি ভাবলে স্বপ্ন মনে হচ্ছে! এ অভিজ্ঞতা সবসময় মনে রাখার মতো। মজার ব্যাপার হলে, কিছুদিন আগে একটি সাক্ষাৎকারে তপু ভাইয়ার ‘একটা গোপন কথা’ গেয়েছিলাম। তিনি আমার পরিবেশনা দেখেছেন। এরপর আমাকে নিয়ে গানটির নতুন সংস্করণ তৈরির ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন জি-সিরিজের কাছে। এটি আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া।”

গান কভার করা কিভাবে শুরু হলো?

টুম্পা: ২০১৪ সাল থেকে ইউটিউবে বিভিন্ন গান কভার করে আপলোড করছি। বাসায় বসেই গান রেকর্ড করে তা আমার ইউটিউব অ্যাকাউন্টে আপলোড করতাম।এভাবেই ধীরে ধীরে পরিচিতি পাওয়া শুরু। বাড়তে থাকে ফ্যান-ফলোয়ার। ক্রমশ ফলোয়ার বাড়তে থাকা এবং তাদের মতামত দেখেই একের পর এক গান কভার করে তা আপলোড দিতাম। সেটা শুধু আমার ফলোআরদের জন্য। কোনো বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে নয়।
এখন পযন্ত শিরোনামহীন, শূন্য, চিরকূট, ওয়ারফেজ ব্যান্ড ছাড়াও অর্ণব, নীরব, কৃষ্ণকলি, জেমস ও তপু ভাইয়ের জনপ্রিয় গান কভার করেছি। আর আরমান আলিফ ভাইয়ের অপরাধী গানটি কভার করে তো ইউটিউব ও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

শুনেছি অপরাধী কভার করে ভাইরাল হয়ে নানা বিড়ম্বনায়ও পড়েছেন?

টুম্পা: এই বিরম্ভনা আমার অপ্রত্যাশিত ছিলো। আমি গানকি কভার করার আগে আরমান আলিফ ভাইয়ের অনুমতি না নিলেও পরে তার সাথে কথা বলেছি। তিনিও আমার প্রশংসা করেছেন। এমনটি তার ফেসবুক পেইজে গানটি শেয়ার করেছেন। যেসব কথা এখন বলা হচ্ছে সেটা একেবারে ঠিক নয়। আমি গান কভার করলেও মূল শিল্পীর ক্রেডিট লাইন দিয়েছি টাইটেলের মধ্যেও। গানটির টাইটেল ছিলো ‘অপরাধী । আরমান আলিফ। কভারড বাই টুম্পা খান’।

সুতরাং আমি টাইটেলেও তার ক্রেডিট দিয়েছি। কিন্তু যখন ইউটিউবে আমার গানটি ৫ দশমিক ৯ মিলিয়ন ভিউ হয়েছে- তখন সেটিকে কপিরাইট অভিযোগ করা হয়েছে। যার কারণে ইউটিউব ভিডিওটি সরিয়ে নেয়। একটি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কপিরাইট অভিযোগ নিয়ে আমার সাথে খারাপ আচরণও করা হয়েছে- যা অপ্রত্যাশিত ছিলো না। অনেকের গানইতো কভার করেছি; এরআগে এমন পরিস্থিতির শিকার হয়নি। আর আমি গানগুলো কভার করেছি শখ থেকেই। আর অপরাধী কভার করে আমিতো আরমান আলিফ ভাইয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করেছি- জানিয়েছি।
 

গান কভার নিয়ে আপনার মতামত কি?

টুম্পা: দেখুন, গান কভার করা শুধু আমাদের দেশ নয় পৃথিবীজুড়ে হয়ে থাকে। অনেকে তো বাণিজ্যিকভাবে করে। কিন্তু আমি তা মোটেও করিনি। যে গান ভালো লাগে, সেটাই কভার করি। আর যারা মনে করে, আমি শুধু গান কভার করি; সেটা তাদের ভুল।

সাম্প্রতিক সময়ে আপনাকে নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে নানা বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানো হচ্ছে...

টুম্পা: দেখুন আমি, ক্লোজআপ ওয়ানসহ বিভিন্ন সঙ্গীত প্রতিযোগিতা প্লাটফর্মে অংশ নিয়েছি। গতবছর গাজী টায়ার্স-এর ‘এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ক্যাম্পেইনে জয়ী হয়েছিলাম। আর ক’মাস আগেও প্রাণ লেয়ার মিউজিক কন্টেস্টের সেরা বারোতে আছি।

সুতরাং, শুধু অন্যের গান নিয়েই চলতে চাইনা। কভারড গানের পাশাপাশি মৌলিক গান নিয়েই থাকবো। তাই আশাকরি, যারা আমার নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাকে নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন কিংবা অপপ্রচার চালাচ্ছেন, সেটা বন্ধ করবেন।

অনেকে মিথ্যে শিরোনাম দিয়ে ব্যক্তিগত আক্রমণ করছে, সে বিষয়ে কি কোনো পদক্ষেপ নেবেন?

টুম্পা: কেউ কেউ ইউটিউব এ অল্প কিছু টাকা ইনকাম-এর জন্য আমার নামে মিথ্যা তথ্য ছড়াচ্ছে। আমি সবাইকে বলতে চাই। কান চিলে নিয়েছে নাকি কান কানের জায়গা তেই আছে,তা যাচাই করে মন্তব্য করুন। যদিও সত্যি বলতে কি, প্রথমে একটু হতাশ হয়েছিলাম। তবে এখন মনে হচ্ছে নজরুলের সেই কবিতা, ‘নিন্দুকেরে বাসি আমি সবার চে ভালো…’। তাই নিজেকে মানাতে শুরু করেছি।

অনেকে দেখছি ফেসবুক ও ইউটিউবে কুৎসা রটাচ্ছে। কেউ কেউ মিথ্যে এমনকি ব্যক্তিগত অবমাননাকর কথা বলছেন। তাদের জন্য আমার তেমন কিছু বলার নেই। কেননা মানুষ তার বিবেক দিয়ে চলে। শুধু বলবো মিথ্যে তথ্য দিয়ে আমার কতো ক্ষতি করবে তারা। একদিন তাদের থামতেই হবে, যদি আমি আল্লাহর রহমতে এগিয়ে যেতে থাকি। আর অপপ্রচার কিংবা অবমাননার একটা মাত্রা থাকা উচিত। সীমা অতিক্রম করলে, আমাকেও হয়তো পাল্টা ব্যবস্থা নেয়া দরকার হতে পারে-তবে তা নির্ভর করবে পরিস্থিতির ওপর।

ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি?

টুম্পা: পড়াশুনা চালিয়ে যাওয়া এবং গান ধরে রাখাই আপাতত উদ্দেশ্য। 'অপরাধী' গানটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে অনেক সাড়া পাচ্ছি। অনেকেই ডাকছেন। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি গান করেছি। মৌলিক গানও গেয়ে চলছি। তাই ভবিষ্যতে গান গাওয়াটা ধরে রাখতে চাই। কেননা গান আমার সঙ্গে মিশে গেছে; আমি ও গান আলাদা হওয়ার সুযোগ হয়তো আর নেই।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর