আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
খুলনায় শিশু আফসানাকে গণধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসির আদেশ পূজা মণ্ডপে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাড়ে তিন লাখ সদস্য নিয়োজিত থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গুলিস্তান মহানগর নাট্যমঞ্চের পুকুর থেকে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার ডেঙ্গুর স্থায়ী সমাধানে ৫ বছর মেয়াদী পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে: সাঈদ খোকন প্রতিটি বিভাগীয় শহরে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে: প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীর বাগমারার মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা মামলায় ৩ জনের ফাঁসি ৪ জনকে যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ১৯ মুহররম ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
রোহিঙ্গাদের এনআইডি প্রদানে সহায়তাকারী তিনজন রিমান্ডে ঈশ্বরগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী নিহত, স্বামী আটক কিশোরগঞ্জে ট্রাকচাপায় ২ স্কুলছাত্র নিহত রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে ২ জনকে গুলি করে হত্যা গাজীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১১ মামলার আসামি নিহত
৫১১

বিএনপি নেতা দুলুর জামিন নামঞ্জুর

ঢাকা অফিস

প্রকাশিত: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮  

কারাগারে থাকা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুর জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ  ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মো. আমিনুল ইসলাম শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ জামিন আবেদনের শুনানি করেন। তিনি জানান, তারা এ আদেশের বিরুদ্ধে মহানগর দায়রা জজ আদালতে যাবেন।

এর আগে গত ১২ ডিসেম্বর বেলা ১১টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে দুলুকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ। এরপর শেরে বাংলা নগর থানার চার্জশিট হওয়া এ মামলায় সিএমএম আদালতে হাজির করা হয়। ওইদিন আসামি পক্ষে জামিনের আবেদন থাকলেও বিচারক শুনানি গ্রহণ না করে ২৩ ডিসেম্বর জামিন শুনানির দিন ঠিক করেন।

পরে ৩১ ডিসেম্বর জামিন শুনানি করা হয়। কিন্তু বিচারক ঢাকা মহানগর হাকিম মো. ইলিয়াস মিয়া ৩১ ডিসেম্বর অধিকতর জামিন শুনানির দিন ধার্য করেন।

তবে এ সম্পর্কে রাষ্ট্রপক্ষের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর আজাদ রহমান বলেন, ‘টালবাহানার কিছুই হয়নি। ঢাকা মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু না থাকায় রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি পেছানোর আবেদন করা হয়েছিল। আদালত তাই শুনানি পিছিয়ে দিয়েছেন।’

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ২৫ জানুয়ারি দুলুর বিরুদ্ধে এই মামলা দাযের করা হয়। দুলুর এই মামলায় ২০১৫ সালে ২৪ জানুয়ারি শেরে বাংলা নগর থানাধীন শিশু পল্লীর সামনের রাস্তার ওপর বোমা বিস্ফোরণ ও গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ আনা হয়।মামলার এজাহারের ১৬ জনের নাম ছিল। সেখানে দুলুর নাম ছিল না। তবে এজাহার গর্ভে তার নাম ছিল।

মামলাটি তদন্তের পর প্রথম দফায় ২০১৬ সালের ১ আগস্ট বিস্ফোরক ও দণ্ডবিধি আইনের পৃথক দুটি চার্জশিট আদালতে ২৯ জনের বিরুদ্ধে দাখিল হয়। পরে মামলাটিতে একই বছর ৩১ ডিসেম্বর দুইটি সম্পূরক চার্জশিট দাখিল হয়। উভয় চার্জশিটে দুলুর নাম ছিল। মামলায় চার্জশিট দাখিল হওয়ার পর দুলু হাইকোর্ট থেকে ৪ সপ্তাহের আগাম জামিন গ্রহণ করেন। পরে হ্ইাকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী তিনি সিএমএম আদালতে আত্মসমর্পণ না করায় গত ২৩ জুলাই সিএমএম আদালত তার জামিন বাতিল করে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর