আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
পরীক্ষায় জালিয়াতি, আ’লীগ থেকে বহিস্কার এমপি বুবলী চাঁপাইনবাবগঞ্জে জেএমবির ৩ সদস্য আটক জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদ দমনে অভিযান চালাবে এন্টি টেররিজম ইউনিট আন্তর্জাতিক আদালতে রোহিঙ্গা মামলার শুনানি ১০ ডিসেম্বর ২ উইকেট হারালো ভারত : ১৩ ওভারে সংগ্রহ ৫১ রান মুন্সিগঞ্জের দুর্ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যু, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১ মাথায় আঘাত পাওয়া লিটন দাস কলকাতা টেস্টে আর খেলতে পারছেন না উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ, বখাটের লাথিতে মেয়ের বাবা নিহত

শনিবার   ২৩ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৮ ১৪২৬   ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
হাসপাতাল থেকে মাঠে ফিরলেন লিটন-নাঈম আমার সন্তানের অধিকার ছাড়বনা : বিদিশা এরশাদ কুষ্টিয়ায় ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ডিগ্রি প্রথম বর্ষের পরীক্ষা শুরু ২৪ নভেম্বর ধর্মঘটের অজুহাতে চড়া সবজি-মাছের বাজার লন্ডনে সন্ত্রাসীদের গুলিতে প্রাণ গেল বাংলাদেশী যুবকের বরিশাল জেলা আদালতের সেরেস্তাদার সাময়িক বরখাস্ত দুর্দশাগ্রস্ত ঋণ, বিপাকে দেশের ব্যাংক খাত
৫৯

বটিয়াঘাটায় চুই চাষে সফল ধীরাজ বালা এখন অনেকেরই প্রেরণার উৎস

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৮ অক্টোবর ২০১৯  

উদ্যোগ থাকলে কৃষি কাজে সফলতা অর্জন করে যে বিত্তবান হওয়া যায় খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার বটিয়াঘাটা ইউনিয়নের বারুই আবাদ গ্রামের ধীরাজ বালা তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ।

বটিয়াঘাটা উপজেলা কৃষি দপ্তরের উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কৃষ্ণপদ বিশ্বাসের অনুপ্রেরণায় ২০১৫ সালে ৬০ শতক জমিতে চুই চাষ শুরু করেন। এখন তার জমিতে প্রায় তিন হাজার চুই এর ঝাঢ়। তিনি শুধু চুই এর ঝাঢ় থেকে কাটিং বিক্রী করে বছরে ৫/৬ লাখ টাকা উপার্জন করেন। তার দেখাদেখি উপজেলায় অনেকে এখন চুই চাষে এগিয়ে এসেছেন।

শুধৃ চুই চাষই নয় একই জায়গায় এক বিঘা জমিতে গলদা, রুই-কাতলা ও গ্রাসকাপ চাষ করে বছরে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করেন। উন্নত প্রযুক্তিতে মাছ চাষের জন্যে তিনি ২০০১ সালে জাতীয় পর্যায়ে সফল মৎস চাষী হিসাবে পুরষ্কৃত হন। ২০০২ সালে উপজেলা পর্যায়ে কৃষি মেলায় তিনি প্রথম পুরষ্কার লাভ করেন। এবং ২০১২ সালে উপজেলার শ্রেষ্ঠ কৃষক হিসাবে পুরষ্কৃত হন।

চুই চাষের সাথে সাথে তিনি উন্নত জাতের আম চাষ করে বছরে লক্ষাধিক টাকা আয় করেন। মৎস ঘেরের পাশের জমিতে তিনি নতুন করে চুই ঝাঢ় রোপন করেছেন এবং চলতি অর্থবছরে উন্নত জাতের বেগুন চাষ শুরু করবেন। একজন অবসরপ্রাপ্ত প্রাইমারি শিক্ষক হিসেবে কৃষি ক্ষেত্রে তার এ প্রচেষ্টা এখন জেলার সীমানা ছাড়িয়ে জাতীয় পর্যায়েও অনেকের অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে দাঁড়িয়েছেন।

তার চুই বাগানে বর্তমানে তিন হাজারের মতো চুই এর ঝাঢ় রয়েছে। তবে তার চুইয়ের বৈশিষ্ট্য হলো লতার মতো কোন গাছ বেয়ে ওঠে না, ঝাঢ় হিসাবে ত্রিশ টাকা দিয়ে এক একটা কাটিং কিনতে হয়। তাকে আরও উৎসাহ দেওয়ার জন্যে বর্তমান উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম, উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা দীপন বিশ্বাস সহ অনেকে সার্বিকভাবে সহযোগীতা করে যাচ্ছেন।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর