• রোববার   ০৫ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২১ ১৪২৭

  • || ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪১

আজকের খুলনা
২৫১৬

ফিরে দেখা : শিল্প ও বাণিজ্য খাতে সরকারের সফলতা

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ৫ জানুয়ারি ২০২০  

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। রুপকল্প ২০২১ এবং একশ’ বছরের ডেল্টা প্লানকে সামনে রেখে দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। উন্নয়নের মহান রুপকার, গণতন্ত্রের মানসকন্যা শেখ হাসিনার দূরদর্শী চিন্তাধারা ও যুগোপযোগী বিভিন্ন পদক্ষেপের কারণে দেশ থেকে দূর হয়েছে ক্ষুধা-দারিদ্র্য-বেকারত্ব। শিক্ষা, কৃষি, শিল্প, ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ, নারীর ক্ষমতায়ন, সামাজিক নিরাপত্তা, স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠাসহ দেশের প্রতিটি সেক্টরে হয়েছে অভূতপূর্ব উন্নয়ন। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন নিয়ে আমাদের ধারাবাহিক পরিবেশনা ‘উন্নয়নের ১২ বছর’।

শিল্প মন্ত্রণালয় শিল্পখাতের সার্বিক উন্নয়ন ও দেশি-বিদেশি শিল্প স্থাপনকে উৎসাহিতকরণ, পণ্যের গুনগত মান রক্ষা এবং উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির মাধ্যমে শিল্পায়ন ত্বরান্বিতকরণে বাংলাদেশ জাহাজ পুনঃপ্রক্রিয়াজাতকরণ আইন-২০১৮; জাতীয় শিল্পনীতি ২০১৬, ট্রেডমার্কস আইন ২০০৯, ট্রেডমার্কস বিধি, ২০১৫, শিল্প প্লট বরাদ্দ নীতিমালা ২০১০, লবণ নীতি ২০১১, ভৌগলিক নির্দেশক পণ্য নিবন্ধন আইন ২০১৩ ও ভৌগলিক নির্দেশক পণ্য নিবন্ধন বিধিমালা ২০১৫, ভোজ্য তেলে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ আইন ২০১৩, রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পুরস্কার প্রদান সংক্রান্ত নির্দেশনাবলী ২০১৩, প্রণয়ন করা হয় । বেসরকারি খাতে শিল্প স্থাপন, পণ্য উৎপাদন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং জাতীয় আয় বৃদ্ধিসহ দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ ২০০৯ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৩৩৮ জনকে বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি-শিল্প) হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে। বার্ষিক ৫ লক্ষ ৮০ হাজার ৮০০ মেট্রিক টন গ্রানুলার ইউরিয়া সার উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন শাহজালাল ফার্টিলাইজার স্থাপন। শাহজালাল ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরি বিসিআইসি-এর নিকট হস্তান্তর। দেশে কৃষকদের নিকট স্বল্প মূল্যে ও দ্রæততম সময়ে সার সরবরাহ নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে। সার সরবরাহ নিরবচ্ছিন্ন এবং সহজলভ্য করতে বিভিন্ন জেলায় নতুন ১৩টি বাফার গুদাম নির্মাণ কাজ এগিয়ে চলছে। ৯ বছরে দেশের সারের কোন সঙ্কট দেখা যায়নি।

দেশের কৃষক ও জনগণের কাছে সার সরবরাহ নিশ্চিত করা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে ৫,১০,০০০ মেট্রিক টন ধারণক্ষমতা সম্পন্ন আরও ৩৪টি বাফার গোডাউন স্থাপনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এ লক্ষ্যে কার্যক্রম চলছে। ছাতক সিমেন্ট কোম্পানি লিঃ-কে লাভজনকভাবে পরিচালনা করতে ছাতক সিমেন্ট কোম্পানি লিঃ এর উৎপাদন পদ্ধতি ওয়েট প্রসেস থেকে ড্রাই প্রসেস এ রূপান্তরকরণ বাস্তবায়নের কাজ চলছে। চিনিকলসমূহে পুরানো যন্ত্রপাতি প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে নতুন যন্ত্রপাতি স্থাপন, ঠাকুরগাঁও চিনিকলে সুগারবিট হতে চিনি উৎপাদন এবং নর্থ বেঙ্গল চিনিকলে চিনি উৎপাদনের সাথে সাথে কোজেনারেশন পদ্ধতিতে বিদ্যুৎ উৎপাদন, বায়োগ্যাস ও ডিস্টিলারি প্ল্যান্ট স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

চিনির গুনগতমান বজায় রাখাসহ আহরণ হার বৃদ্ধি করতে ৭টি চিনিকলের পুরাতন সেন্ট্রিফিউগাল মেশিন প্রতিস্থাপন। চিনিকলের বর্জ্য থেকে জৈবসার উৎপাদনের লক্ষ্যে কেরু সুগার মিলস (ডিস্টিলারিতে) প্রেসমাড হতে অরগানিক জৈব সার উৎপাদন প্ল্যান্ট স্থাপন। ফরিদপুর সুগার মিলে বিদ্যমান ১০১৬ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদন ক্ষমতা বজায় রাখা এবং চিনি আহরণ হার বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১টি বয়লার, ১টি শ্রেডার ও ১টি এভিয়ার প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। বিসিক খুলনা-সাতক্ষীরা অঞ্চলে লবণ শিল্পের উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন। ফলে লবণ চাষে গণসচেতনতা বৃদ্ধিসহ লবণ চাষের কারিগরি জ্ঞানসম্পন্ন দক্ষ জনগোষ্ঠী গড়ে উঠেছে। লবণ শিল্পের উন্নয়নের ফলে লবণ চাষের জমিতে লবণ মৌসুমের পরবর্তীতে ধান ও চিংড়ি চাষ করে বাড়তি আয় সম্ভব হচ্ছে। লবণ চাষ স¤প্রসারিত হওয়ার ফলে সুন্দরবনের অবৈধ কাঠ কাটার প্রবণতা কমে আসছে।  পাবনা জেলার হেমায়েতপুর এলাকায় ৫০ একর জমিতে পাবনা শিল্পনগরী স্থাপিত।  শিল্পনগরীতে ৯৭টি প্লটের মধ্যে ৯৪টি প্লট ক্ষুদ্র, কুটির ও মাঝারি শিল্প কারখানা স্থাপনের জন্য বরাদ্দ, ফলে ৪ হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
উন্নয়ন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর