আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
রাঙামাটিতে জেএসএস কর্মীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার পাকিস্তান সফরে টাইগারদের সাথে যাচ্ছেন পাপনও শিশু ধর্ষণ মামলায় মৃত্যুদণ্ড দিতে হাইকোর্টের রুল আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ইজতেমার ২য় পর্ব মৌলভীবাজারে একই পরিবারের তিন জনসহ পাঁচ জনকে কুপিয়ে হত্যা টেকনাফে বিজিবি`র সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা নিহত, অস্ত্র-মাদক উদ্ধার

সোমবার   ২০ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৬ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
সাতছড়ি উদ্যানে কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণ, আসামি গ্রেপ্তার এবার হজে যেতে বিমান ভাড়া এক লাখ ৪০ হাজার টাকা মিজান-বাছিরের বিরুদ্ধে দুদকের চার্জশিট দাখিল ফরিদপুরে আগুনে পুড়ে মা-মেয়ের মৃত্যু
৬৫৭

প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের সমালোচনায় ফখরুলের এ কেমন মিথ্যাচার !

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৮ জানুয়ারি ২০২০  

আওয়ামীলীগ সরকারের দেশ পরিচালনার এক বছর পুর্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া ভাষণের সমালোচনার নামে মিথ্যাচার করে নিজেকে হাসির পাত্রে পরিণত করলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

প্রধানমন্ত্রী ভাষণের বিরোধিতা করে মির্জা ফখরুল বলেন ‘‘৭২-৭৫ সালে এ দেশে একটি চরম দুর্ভিক্ষ হয়েছিল তৎকালীন আওয়ামীলীগ সরকারের দুঃশাসনের কারণে। বর্তমান বাংলাদেশের রাজনীতিতে অর্থনীতি হচ্ছে প্রধান সংকট। আওয়ামীলীগ হত্যা করছে, তুলে নিয়ে গিয়ে মানুষ মারছে, নিখোঁজ হয়ে যাচ্ছে, গুম হয়ে যাচ্ছে।’’

ঐতিহাসিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশে দূভিক্ষ দেখা দিয়েছিল আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র ও এদেশীয় কিছু স্বাধীনতা বিরোধীর চক্রান্তের কারণে। ওই সময় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র খাদ্য সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের কারণে তা দেয়নি। যুদ্ধবিধ্বস্ত সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশ তখন বিশ্ব মানচিত্রে একটি শিশু রাষ্ট্র। পাকিস্তানী গোয়েন্দা সংস্থা ‘আইএসআই’ ও তাদের এজেন্টরা তখনো বাংলার রাজনীতিতে সক্রিয় ছিল। কাজেই ওই সময় একা বঙ্গবন্ধু বা আওয়ামীলীগের পক্ষে তাদের বৈরিতা মোকাবেলা করা কঠিন ছিল।

অন্যদিকে, মির্জা ফখরুল দাবি করেছেন, বর্তমান বাংলাদেশের রাজনীতিতে অর্থনীতি হচ্ছে প্রধান সংকট। অথচ তিনি কত বড় মিথ্যাচার করেছেন তা সাম্প্রতিক বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গবেষণা সংস্থার প্রতিবেদনগুলোর দিকে দৃষ্টিপাত করলে সহজেই অনুধাবন করা যায়। স্বনামধন্য আন্তর্জাতিক ফোবর্স ম্যাগাজিন সম্প্রতি বলেছে, ‘‘বাংলাদেশ এশিয়া মহাদেশের একটি অর্থনৈতিক বিষ্ময়। এশিয়ায় প্রবৃদ্ধির শীর্ষে থাকবে বাংলাদেশ।’’  অন্যদিকে, সেন্টার ফর বিজনেস এন্ড ইকোনমিক রিসার্চ ( সিবিইআর) বলছে ‘‘বাংলাদেশের অর্থনীতি ২০২৪ সালের মধ্যে মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরকে ছাড়াবে।’’ বাংলাদেশের অর্থৈনৈতিক প্রবৃদ্ধি ভালো থাকায় বিশ্বব্যাংক, এডিবি ও জাইকাসহ সকল আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে প্রতিযোগিতায় নেমেছে।  

মির্জা ফখরুল আরো দাবি করেছেন, ‘‘আওয়ামীলীগ হত্যা করছে, তুলে নিয়ে গিয়ে মানুষ মারছে, নিখোঁজ হয়ে যাচ্ছে, গুম হয়ে যাচ্ছে।’’

পরিসংখ্যানে জানা গেছে, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে বাংলাদেশে তৎকালীন বিরোধী দল আওয়ামীলীগের প্রায় ৫০ হাজার নেতা কর্মীকে হত্যা ও গুম করা হয়েছিল। সংখ্যালঘু নির্যাতন ছিল নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা। দূর্ণীতিতে ৫ বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। ১৯৯৫ এর ১৫ মার্চ সার কীটনাশক চাওয়ায় গুলি করে ১৮ কৃষকককে হত্যা করা হয়েছিল। আওয়ামীলীগের আমলে বিএনপি ৮৫ দিন হরতাল ও ২৯০ দিন অবরোধ কর্মসূচি করে জনগণের চরম ভোগান্তি সৃষ্টি করেছিল।  

এ বিষয়ে বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. নুর উল আহসান বলেন, বিএনপির কাজই হচ্ছে সমালোচনা করা। সমালোচনা করা ভালো তবে তা গঠনমূলক হওয়া দরকার। সমালোচনার নামে ঢালাও মিথ্যাচার রাজনৈতিক শিষ্ঠাচার বহির্ভুত ও নিন্দনীয়। সরকারের উন্নয়ন বিএনপির চোখে পড়ে না। তাই তারা কখন কি বলেন, নিজেরাই জানেন না। 

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর