আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
গানপাউডার ও ককটেলসহ জামায়াত-শিবিরের ১৬ কর্মী আটক চট্টগ্রামের বস্তিতে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ১৪টি ইউনিট হবিগঞ্জে যাত্রীবাহী বাস উল্টে নারীসহ নিহত ৩ টুঙ্গিপাড়া পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী মিরপুর-৭ এর চলন্তিকা বস্তিতে ভয়াবহ আগুন, কয়েকশ ঘরবাড়ি পুড়ে ছাই যশোরে চোর সন্দেহে ভ্যানচালককে পিটিয়ে হত্যা পবিপ্রবিতে র‌্যাগিংয়ের দায়ে ১৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

শুক্রবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১১ ১৪২৬   ২৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পারাবত এক্সপ্রেসে ভয়াবহ আগুন কক্সবাজারে বিজিবির সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১ পাকিস্তানে টি-টোয়েন্টি দিয়ে বাংলাদেশের মাঠের লড়াই শুরু আজ আইসিজের অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ প্রত্যাখ্যান করলো মিয়ানমার নারায়নগঞ্জে জাহাজের নিচে চাপা পড়ে শ্রমিক নিহত, নিখোঁজ ১
২৭৭

দূর্নাম ঘোঁচাতে সাংসদের ছবি দিয়ে পোস্টার!

কয়রা প্রতিনিধি : প্রকাশিত ৫:২৯ পিএম

প্রকাশিত: ৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

খুলনা-৬ আসনের সাংসদ আখতারুজ্জামান বাবুর ছবি ব্যবহার করে প্যানা টানিয়েছেন আবু সাঈদ মোল্লা নামে এক ব্যাক্তি। তার বিরুদ্ধে সুন্দরবনের বনদস্যুদের পৃষ্টপোষকতার অভিযোগে থানায় মামলা রয়েছে। স্থানীয় মানুষের ধারনা নিজের দূর্নাম ঘোঁচাতে তিনি সংসদ সদস্যের ছবি ব্যবহার করেছেন। 

আবু সাঈদ মোল্লা খুলনার কয়রা উপজেলার মঠবাড়ি গ্রামের খোকন মোল্লার ছেলে। এলাকায় নিজেকে তিনি উপজেলা যুবলীগের ‘শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক’ হিসেবের পরিচয় দিয়ে থাকেন। তবে পোস্টারে নিজেকে ‘বিশিষ্ট ব্যবসায়ি ও সমাজসেবক’ হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে সুন্দরবনে মাছের ব্যবসার আড়ালে বনদস্যুদের পৃষ্টপোষকতার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। গত ১০ অক্টোবর র‌্যাবের অভিযানের পর পলাতক ছিলেন তিনি। 

ওই পোস্টারে খুলনা-৬ আসনের সাংসদ আখতারুজ্জামান বাবুকে খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য দাবী জানিয়ে নীচে নিজের ছবি দিয়েছেন আবু সাঈদ। তবে পোস্টারে ছবি ব্যবহারের জন্য কোন অনুমতি নেওয়া হয়নি বলে সাংসদ আখতারুজ্জামান বাবু নিশ্চিত করেছেন। 

সাংসদের ছবি ব্যবহার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আবু সাঈদ মোল্লা বলেন, ‘আওয়ামীলীগ করি, তাই ব্যবহার করিছি। তাছাড়া নির্বাচনের সময় এমপি সাহেবের জন্যি অনেক কষ্ট করিছি। তাকে জেলা কমিটিতে সেক্রেটারি করার দাবী জানাতেই পারি। এতে দোষের কি আছে।’  

বনদস্যুদের পৃষ্টপোষক হিসেবে পরিচিত আবু সাঈদের প্যানা-পোস্টারে সাংসদের ছবি থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দলের অনেকেই। কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাদীউজ্জামান রাসেল বলেন, অনুমতি ছাড়া এমপি’র ছবি ব্যবহার করে সে বড় ভুল করেছে। তাঁকে প্যানা-পোস্টার সরিয়ে ফেলতে বলা হবে। 

এর আগে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাদীউজ্জামান রাসেল তাঁর নিজের ফেসবুক এ্যাকাউন্টে আবু সাঈদের ছবি দিয়ে তাকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে ধরিয়ে দিতে অনুরোধ করেন। সেখানে তিনি আবু সাঈদকে বনদস্যুদের সহযোগী হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন। 

স্থানীয় ইউপি সদস্য অহিদ মোড়ল বলেন, ‘আবু সাঈদের বিরুদ্ধে সুন্দরবনে বনদস্যুদের সহযোগীতার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। সুন্দরবনের ব্যবসার আড়ালে তার মূল কাজ জেলে বাওয়ালীদের কাছ থেকে বনদস্যুদের নামে চাঁদা আদায়। দূর্নাম ঘোচাতে বর্তমানে এমপি সাহেবের ছবির নীচে নিজের ছবি দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় প্যানা পোস্টার টানাতে দেখা যাচ্ছে।’

এ প্রসংগে খুলনা-৬ আসনের সাংসদ আখতারুজ্জামান বাবু বলেন, আবু সাঈদ নামে কাউকে আমি চিনি না। সে যদি আমার ছবি ব্যবহার করে পোস্টার টানিয়ে থাকে তা এখনি খুলে ফেলতে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। ভবিষ্যতে অনুমতি ছাড়া কেউ যাতে ছবি ব্যবহার করতে না পারে সেজন্যও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর