• শুক্রবার   ১৮ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪২৮

  • || ০৯ জ্বিলকদ ১৪৪২

আজকের খুলনা

ডুমুরিয়ায় রাস্তার সদ্য কার্পেটিং তুলে ক্ষতি করলো দুর্বৃত্তরা

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২৪ মে ২০২১  

এ কেমন শত্রুতা ! গাছের সাথে অথবা মাছের সাথে অহরহ শত্রুতা ঘটলেও এবার নতুন যোগ হলো রাস্তার সাথে শত্রুতা! সদ্য নির্মিত সড়কের কয়েকটি স্থানে কার্পেটিং ও হেজিন তুলে ক্ষতিসাধন করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার সকালে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার আমভিটা বাজার ইউ জেড আর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ডুমুরিয়া থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।

জানা যায়, প্রতিটি গ্রাম হবে এক একটি শহর সরকারের এমন মহাপরিকল্পনা ইতোমধ্যে বাস্তবায়িত হতে চলেছে। তার ধারাবাহিকতায় খুলনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য নারায়ণ চন্দ্র চন্দের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ডুমুরিয়া ও ফুলতলা উপজেলার প্রায় সব অলিগলি এখন পাকা করণের কাজ চলছে পুরোদমে। কিন্তু বর্তমান সরকারের এই উন্নয়ন যাত্রায় বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে এক শ্রেণীর দুষ্টু চক্র। তারা ব্যক্তি আক্রোশের জেরে দেশের সম্পদ নষ্ট করতে একটুও পিছু হোটিনি।

খুলনা-বাগেরহাট-সাতক্ষীরা অঞ্চলের পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় এলজিইডি’র তত্বাবধানে আমভিটা বাজার ইউ জেড আর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন সড়কটি ১.৩২৭ কিলোমিটার পর্যন্ত ১ কোটি ২ লাখ ২৩ হাজার টাকা বরাদ্দে কার্পেটিংয়ের কাজ হয়েছে। গত ১৩ মে কার্পেটিংয়ের কাজ সম্পন্ন হয়। এরই মধ্যে রাস্তার কয়েকটি স্থানে কার্পেটিং ও হেজিন তুলে ক্ষতিসাধন করেছে দুর্বৃত্তরা। গত শনিবার সকাল ৯টা থেকে বেলা ১১টার মধ্যে কোন এক সময় ঘটনাটি ঘটিয়ে শটকে পড়ে তারা।

রাস্তার ঠিকাদার ফারুক হোসেন খান বলেন, ‘রাস্তা করার সময় এক বালি ব্যবসায়ীর সাথে আমার বিরোধ হয়। সে রাস্তার উপর দিয়ে পাইপ লাইন টেনে অন্য স্থানে বালি ভরাট করছিলো। আমার কাজের স্বার্থে তাকে নিষেধ করি। এছাড়াও তার কাছ থেকে রাস্তায় বালি না নেওয়াতে সে আমার উপর ক্ষিপ্ত। রাস্তা করতে দিবেনা এমন ধরনেরও হুমকি দিয়েছে সে। আমার সন্দেহ হয় রাস্তার ক্ষতি সেই করতে পারে।’

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এজাজ আহমেদ বলেন, আমি রাস্তার ক্ষতিগ্রস্থ স্থান গুলো পরিদর্শন করেছি। বিষয়টি স্থানীয় এমপি মহোদয়কে জানানো হয়েছে। এছাড়াও থানা পুলিশকে বিষয়টি বলেছি, ক্ষতি যেই করুক তাকে সনাক্ত পূর্বক আইনের আওতায় আনতে হবে।

এ প্রসঙ্গে থানা অফিসার ইনচার্জ ওবাইদুর রহমান বলেন, রাস্তার ক্ষতির বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

 

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা