আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
রাজধানীতে মাইক্রোবাস-সিএনজি-অটোরিকশার ত্রিমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩ ইভিএম অধ্যাদেশ সংসদে পাস হয়েছে কি না জানতে চান হাইকোর্ট যশোর-৬ আসনের এমপি ইসমত আরা’র শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ পঞ্চগড়ে সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

মঙ্গলবার   ২১ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৮ ১৪২৬   ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
সিটি নির্বাচন : ভোটের আগে-পরে ১৮ ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ রাজশাহীতে কুখ্যাত সন্ত্রাসী জাবের বাহিনীর প্রধানসহ আটক ৫ আইসিসি টুর্নামেন্টের স্বাগতিক বাছা হবে বিডিংয়ের মাধ্যমে : পাপন টেকনাফে মালয়েশিয়াগামী ২২ রোহিঙ্গা আটক
৮৬০

ছবি কম, স্টেজ শোই ভরসা

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫ মে ২০১৯  

ঢাকার চলচ্চিত্রে এখন ছবি নির্মাণের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে কমে যাচ্ছে। এ বছর শাকিব খানসহ দু-একজন বাদে কোনো তারকাকেই নতুন কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হতে দেখা যায়নি। তবে এই সব তারকার কেউই বসে নেই। গত বছর এবং এ বছর চুক্তি করা কিছু সিনেমার শুটিংয়ের ফাঁকে ফাঁকে দেশের বিভিন্ন জায়গায় স্টেজ শোতে অংশ নিচ্ছেন। এই তালিকায় আছেন ফেরদৌস, পূর্ণিমা, পপি, অপু বিশ্বাস, শাকিব খান, মাহিয়া মাহি, নুসরাত ফারিয়া, বিদ্যা সিনহা মিম, বাপ্পী চৌধুরী, নিরব, ইমন। এই সব তারকার কেউ কেউ মাসে পাঁচ থেকে ছয়টি শো করছেন। প্রতিটি শো থেকে ২ লাখ থেকে ১০ লাখ টাকা সম্মানী নিচ্ছেন তাঁরা।

তারকাদের কেউ কেউ বলছেন, সিনেমা কমে যাওয়ার কারণে অনেক তারকার হাতে ছবি কমে গেছে। এ কারণে তাঁরা বিভিন্ন ধরনের স্টেজ শো করছেন। অনেকে আবার আগে থেকেই স্টেজ শো করছেন নিয়মিত। বিষয়টি ইতিবাচকভাবেই দেখছেন নায়ক ফেরদৌস। তিনি বলেন, ‘আমি এটিকে পেশার অংশ হিসেবেই মনে করি। আমি যখন ছবির কাজ নিয়ে তুমুল ব্যস্ত, তখনো নিয়মিত স্টেজ শো করেছি, এখনো করছি। স্টেজ শো থেকে তারকাদের সঙ্গে দর্শকের সরাসরি সম্পৃক্ততা তৈরি হয়। পাশাপাশি আর্থিক সুবিধাও তো পাচ্ছেন তারকারা।’

তবে ফেরদৌস স্বীকার করেন যে বর্তমান সময়ে ছবির সংখ্যা কমে যাওয়ার কারণে অনেক তারকাই স্টেজ শো করছেন। তিনি বলেন, একসময় সিনেমার কেউ কেউ স্টেজ শো করতেন না বা করতে চাইতেন না। তাঁরা দেখি এখন নিজেদের প্রয়োজনে স্টেজ শো করছেন।

গত বছর চুক্তি করা অপু বিশ্বাসের দুটি ছবির শুটিং শেষ হয়নি এখনো। বেশ কয়েক মাস ধরে ছবি দুটির শুটিং বন্ধ আছে। এ বছরে এখনো নতুন ছবি হাতে নেননি অপু। মাঝেমধ্যে বিভিন্ন ধরনের করপোরেট শোতে দেখা যাচ্ছে ঢাকাই ছবির এই নায়িকাকে। তিনি বলেন, ‘ভালো ছবির জন্য অপেক্ষা করছি। এর ফাঁকে মাঝেমধ্যে কিছু বাছাই করা করপোরেট শো করি। এসব শোতে সিনেমারই গানে পারফর্ম করি। পর্দার বাইরে স্টেজ শো থেকে দর্শকদের সরাসরি বিনোদন দিতে পারছি। আমরা চলচ্চিত্রশিল্পী। বিনোদন দেওয়াটা আমাদের মুখ্য বিষয়।’

প্রায় সাত-আট বছর আগে দেশের জাতীয় পর্যায়ের দু-একটি স্টেজ শোতে অংশ নিয়েছিলেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান। এরপর আর তাঁকে স্টেজ শো করতে দেখা যায়নি। হঠাৎ করেই এ বছর বেশ কয়েকটি বড় বড় করপোরেট শোতে অংশ নিয়েছেন তিনি। বর্তমানে একটু প্রেম দরকার ও পাসওয়ার্ড নামে দুটি ছবির কাজ আছে তাঁর হাতে।

সিনেমার কাজ কমে যাওয়াতে স্টেজ শো করছেন, বিষয়টির সঙ্গে একমত নন মাহিয়া মাহি। তিনি বলেন, ‘সিনেমা কমেছে ঠিক আছে। কিন্তু সিনেমার প্রস্তাব তো কম পাচ্ছি না। ভালো কাজ কম। আর স্টেজ শো তো সিনেমার কাজেরই অংশ। কারণ, চলচ্চিত্রশিল্পী হিসেবেই আমরা স্টেজ উঠছি। হলিউড-বলিউডের ব্যস্ত তারকারাও তো নিয়মিত স্টেজ শো করেন।’ তিনি আরও বলেন, করপোরেট জগতের অনেকেই আছেন, যাঁরা বাংলা সিনেমা দেখেন না। তাঁদের সামনে বাংলা সিনেমা সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার সুযোগ হচ্ছে স্টেজ শোয়ের মাধ্যমে।

এ বছর নতুন কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হননি চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম। তিনি বলেন, ‘সিনেমা কমে যাওয়ার কারণে স্টেজ শো কম করছি, তা নয়। আমি আগেও করতাম, এখনো বেছে বেছে কিছু করপোরেট শো করি। এখানে কম সময়ে ভালো পারিশ্রমিক পাওয়া যায়।’

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর