• মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৩ ১৪২৬

  • || ১৩ শা'বান ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে এমন এলাকা লকডাউনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সব দলকে ঐক্যবদ্ধভাবে জনগণের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান কাদেরের ইবাদত-উপাসনা ঘরে পালনের নির্দেশ আরো বাড়লো আক্রান্তের সংখ্যা, সর্বমোট ১২৩ করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশকে ২১ মিলিয়ন পাউন্ড দেবে যুক্তরাজ্য ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি
২৫

চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ইউরোপা লিগের ফাইনাল স্থগিত

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২০  

করোনভাইরাসের কারণে মে মাসে অনুষ্ঠিতব্য চ্যাম্পিয়নস লিগ, ইউরোপা লিগ ও নারী চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল পিছিয়ে দিয়েছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা উয়েফা। এখনো নতুন কোনো তারিখ ঘোষণা করা হয়নি। এর আগে চলতি মাসের শুরুতে প্রতিযোগিতাগুলো অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয় উয়েফা। উয়েফা জানিয়েছে নতুন করে কোনো তারিখ নির্ধারণের এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

এক বিবৃতিতে উয়েফা বলে, 'উয়েফার সভাপতি আলেক্সান্দার সেফেরিনের সভাপতিত্বে ইউরোপিয়ান ফুটবলের স্টেকহোল্ডারদের সাথে এক ভিডিও কনফারেন্সে গত সপ্তাহে পুরো বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এর সাথে উয়েফার ওয়ার্কিং গ্রুপও জড়িত ছিল। গ্রুপটি ইতোমধ্যেই ক্যালেন্ডার পুনঃনির্ধারনের কাজ শুরু করেছে। সময়মত এ সম্পর্কে ঘোষণা দেয়া হবে।'

আগামী ৩০ মে ইস্তাম্বুলের আতাতুর্ক স্টেডিয়ামে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল। তিনদিন পর পোলিশ শহর গাদানাস্কে ইউরোপা লিগের ফাইনাল। নারীদের চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালের তারিখ নির্ধারিত ছিল ২৪ মে ভিয়েনায়। ১৭ মার্চ থেকে শুরু হবার কথা ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ১৬'র দ্বিতীয় লেগের বাকি থাকা চারটি ম্যাচ। এছাড়া ইউরোপা লিগে শেষ ১৬'র সবগুলো ম্যাচও বাকি রয়েছে। কিন্তু করোনভাইরাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ায় সবগুলো শেষ পর্যন্ত পিছিয়ে দেয় উয়েফা।

ইতোমধ্যেই চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ, পিএসজি, আটালান্টা ও আরবি লিপজিগ।একই কারণে ইউরোপের সবগুলো শীর্ষ ঘরোয়া লিগও বন্ধ রয়েছে। এক বছর পিছিয়ে গেছে ইউরো ২০২০ ও কোপা আমেরিকার আসর। ইউরোপা লিগ শেষ হতে না পারলে উয়েফাসহ ও ইউরোপের শীর্ষ ক্লাবগুলো বড় ধরনের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বে। গত মৌসুমে উয়েফা প্রাইজমানি হিসেবে ১.৯ বিলিয়ন ইউরো দিয়েছিল।

বাস্কেটবলে কখনো কখনো কোয়র্টার ফাইনালের দুই লেগের ম্যাচ কমিয়ে এক লেগে সম্পন্ন করা হয়। আবার সেমিফাইনাল ও ফাইনালের পরিবর্তে 'ফাইনাল ফোর' ফর্মেটে ম্যাচের সংখ্যা কমিয়ে আনা হয়। সেফেরিন বলেছেন, 'সব অপশনই আমাদের সামনে খোলা আছে। আমাদের মাথায় ভিন্ন পরিকল্পনা আছে, তবে এখনই সেসব বলার সময় আসেনি। আমরা এখনো জানি কোভিড-১৯ কখন বন্ধ হবে এবং আমরা মাঠে ফিরতে পারব।'

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর