• মঙ্গলবার   ২৪ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১০ ১৪২৭

  • || ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২

আজকের খুলনা

চিকিৎসা ক্ষেত্রে উচ্চ শিক্ষার দ্বার খুলছে খুলনায়

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০  

মেডিকেল শিক্ষায় গবেষণা ও উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়নে খুলনায় শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গতকাল মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা আইন ২০২০’ খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়।

এতে উচ্ছ্বাস দেখা দিয়েছে খুলনার মানুষের মধ্যে।  জানা যায়, খুলনায় চিকিৎসা ক্ষেত্রে গবেষণা ও সুযোগ-সুবিধা সম্প্রসারণে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি দীর্ঘদিনের। ২০১৯ সালে জেলা প্রশাসক সম্মেলনে খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন প্রধানমন্ত্রীর স্মৃতি লালিত খুলনায় ‘শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়’ স্থাপনের প্রস্তাব দেন।

পরে জেলা মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভায় বিষয়টি আলোচনা এবং খুলনায় মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে চিঠি পাঠানো হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ১৩ জুলাই মন্ত্রিসভার  বৈঠকে ‘শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা আইন ২০২০’ এর নীতিগত অনুমোদন দেয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, খুলনায় মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে ১০০ একর খাসজমি প্রাথমিকভাবে চিহ্নিত করেছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য সিটি করপোরেশনের বর্ধিত এলাকায় খাসজমি নেওয়া হবে। যাতে অধিগ্রহণে জটিলতা বা আর্থিক ব্যয় কম হয়। তিনি বলেন, খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদনের পর সংসদে বিল পাস ও প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। তারপর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়োগ ও জমি অধিগ্রহণ করা হবে। এ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে উন্নত চিকিৎসা সম্প্রসারিত হবে।

খুলনা বিভাগে মেডিকেল কলেজসহ চিকিৎসার সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান এ বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতাধীন থাকবে।

এদিকে খুলনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদনে অভিনন্দন জানিয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও নাগরিক সংগঠন। বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির মহাসচিব শেখ আশরাফ-উজ্জামান বলেন, এই মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে খুলনায় চিকিৎসা ক্ষেত্রে উচ্চশিক্ষার দ্বার খুলছে। দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণ হওয়ায় খুশি এ অঞ্চলের মানুষ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়টি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দ্রুত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান।

জানা গেছে, মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য লবণচরা থানা এলাকায় ৬০ একর জমি এবং একই এলাকায় আরও ৫০ একরের একটি জমি প্রাথমিকভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা