• সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০ ||

  • চৈত্র ১৬ ১৪২৬

  • || ০৫ শা'বান ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
চট্টগ্রামে ৭২ ঘণ্টায় ৩০ নমুনা সংগ্রহ, মেলেনি করোনার লক্ষণ করোনা নিয়ে গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: আইজিপি অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বেনাপোল সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদার করোনা প্রতিরোধে সারাদেশে কাজ করছে সেনাবাহিনী সবকিছু নিয়ে সরকার জনগণের পাশে আছে : প্রধানমন্ত্রী
১৭৬

চলে গেলেন বিখ্যাত শিল্পী হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের নাতনি পায়েল

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

বিখ্যাত গায়ক হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের নাতনি এবং বিখ্যাত অভিনেত্রী প্রয়াত মৌসুমী চট্টোপাধ্যায়ের মেয়ে পায়েল ডিকি সিনহা আর নেই। বৃহস্পতিবার রাত ২টা নাগাদ মৃত্যু হয় তাঁর। ছোট থেকে ডায়াবেটিসে ভুগতেন পায়েল। বছর দুই আগে শারীরিক অবস্থা খারাপ হতে থাকে পায়েলের। এদিন তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মৌসুমি চট্টোপাধ্যায় ও তাঁর স্বামী জয়ন্ত মুখোপাধ্যায়ের দুই মেয়ে- পায়েল ও মেঘা। এঁদের মধ্যে মেঘাও গ্ল্যামার দুনিয়ায় পা রেখেছেন। কিন্তু পায়েল অভিনয়ের জগতে আসেননি। হতে পারে অসুস্থতার কারণেই আড়ালে থেকেছেন তিনি। ছোটবেলা থেকেই ডায়াবেটিস ছিল তাঁর। চিকিৎসাও চলছিল। ২০১০ সালে ডিকি সিনহার সঙ্গে বিয়ে হয় পায়েলের। দাম্পত্যজীবন নিয়ে অবশ্য কখনও চর্চায় আসেননি মৌসুমি দুহিতা। বরং তাঁর অসুস্থতার কথা বারবার খবরে এসেছে। ২০১৭ সালে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। পরের বছর তাঁকে বাড়ি নিয়ে যান স্বামী ডিকি সিনহা।

এরপর মৌসুমি চট্টোপাধ্যায় অভিযোগ তোলেন, পায়েলের সঙ্গে নাকি দেখা করতে দিচ্ছে না মেয়ের শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। স্ত্রীর অভিযোগকে সমর্থন করেন স্বামী জয়ন্ত মুখোপাধ্যায়ও। এ নিয়ে হাইকোর্টে অভিযোগ দায়ের করেন তাঁরা। অভিনেত্রী এও অভিযোগ করেন, পায়েলের চিকিৎসা করাচ্ছেন না জামাই ডিকি ও তাঁর বাড়ির লোকেরা। এমনকি মেয়ের ফিজিওথেরাপি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ জানান তিনি।

২০১৮ সালে কোমায় আক্রান্ত অসুস্থ মেয়েকে দেখার জন্য বম্বে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন অভিনেত্রী মৌসুমী চট্টোপাধ্যায়। মেয়ের উপযুক্ত চিকিত্সার জন্যও আবেদন জানান তিনি। 

মেয়ে জামাই ডিকির বিরুদ্ধে মৌসুমী অভিযোগ করেন, ডিকি পায়েলের দেখাশোনা করেন না। তার যথাযথ চিকিত্সাও হচ্ছে না।

মৌসুমী তাঁর আবেদনে জানিয়েছেন যে হাসপাতালে তাঁরা মেয়েকে নিয়মিত দেখতে যেতেন। কিন্তু কয়েক মাস আগে কোমায় চলে যাওয়া পায়েলকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে চলে যায় মেহেতা পরিবার। তারপর থেকে পায়েলের আর কোনও চিকিত্সা হচ্ছে না এবং তাঁদেরও মেয়ের কাছে যেতে দেওয়া হচ্ছে না।

পায়েলের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন অভিনেতা তুষার কাপুর। তিনি টুইটারে লিখেছেন, পায়েলের সঙ্গে তাঁর ছোট থেকেই পরিচয়। মৌসুমী চট্টোপাধ্যায় ও তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তুষার কাপুর।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
বিনোদন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর