• শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ৯ ১৪২৬

  • || ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
সারাদেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে মহান মাতৃভাষা দিবস বরিশালে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানিয়ে ফেরার পথে যুবক নিহত মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশের প্রথম নারী রাষ্ট্রদূত নাহিদা কুমিল্লায় বন্দুকযুদ্ধে দুই ডাকাত নিহত
২৭০

খুলনায় ৯ মাসে ১০০ কোটি টাকা রেমিটেন্স আয়

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ২২ নভেম্বর ২০১৮  

খুলনা ও বাগেরহাট থেকে চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৯মাসে ৫হাজার ১৮জন অভিবাসী কর্মী বিদেশে গমন করেন। তারা বৈধ ভাবে ব্যাংকের মাধ্যমে প্রায় ১০০ কোটি টাকা বিদেশ থেকে পরিবারের কাছে পাঠিয়েছেন। খুলনা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি কার্যালয় এ তথ্য জানিয়েছে। খুলনা ও বাগেরহাট জেলা এই কার্যালয়ের অধীন। জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি কার্যালয় সূত্র জানান, ১৯৭৬ সাল থেকে এর কার্যক্রম শুরু হয়। মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের ১৬১টি দেশে প্রায় ১কোটির বেশী বাংলাদেশী কর্মরত রয়েছেন। তাদের প্রেরিত রেমিটেন্সের মাধ্যমে অভিবাসী কর্মী তার নিজের, পরিবারের ও সমাজের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। অভিবাসন দেশ ও জাতির জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক দরিদ্র ও অস্বচ্ছল পরিবারকে বিদেশ গমনেচ্ছু কর্মীদের সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে।
চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৯মাসে ২হাজার ৫৪০জন কর্মী বিদেশে গমন করেন। এর মধ্যে পুরুষ ১হাজার ৭৫৬জন ও নারী কর্মী ৭৮৪জন। বাগেরহাট থেকে ২হাজার ৪৭৮জন কর্মী বিদেশে গেছেন। এর মধ্যে পুরুষ ২হাজার ৩৬জন ও নারী ৪৪২জন। ৯মাসে এরা বিদেশ থেকে ৯০ কোটি ৮৯লাখ ৮৮ হাজার টাকা প্রেরণ করেন।
সূত্র জানান,বিদেশগামী কর্মীদের ঢাকার পরিবর্তে এখন খুলনায় আঙ্গুলের ছাপ কার্যক্রম চলছে। ফলে বিদেশ গমনেচ্ছুদের আর ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছেনা। এ বছরের গত ১৭ জানুয়ারি হতে চালু হয়েছে খুলনা জেলার বিদেশগামী কর্মীদের জন্য বিএমইটি ঢাকার পরিবর্তে সেবা সহজীকরণের জন্য খুলনা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি কার্যালয়ে অনলাইন ডাটাবেজে নিবন্ধন ও আঙ্গুলের ছাপ (ফিংগার প্রিন্ট) কার্যক্রম। সাতক্ষীরা জেলার জন্য আলাদা রয়েছে সাতক্ষীরায়। প্রতিদিন ৪০জন বিদেশগামী কর্মী আসেন। খুলনায় কোন দালাল বা প্রতারক চক্র নেই। নারী কর্মীদের ২৫-৪৫ বছর বয়স হতে হবে। এর কম বা বেশী হলে বিদেশ যাওয়া যাবে না।
বাংলাদেশ থেকে ১৬১টি দেশে কর্মী যাচ্ছেন। এর মধ্যে সৌদি আরব, কাতার, দুবাই, বাহরাইন, দক্ষিণ কোরিয়ায় বেশী কর্মী যাচ্ছেন। বড় শ্রমবাজার সৌদি আরব। মালয়শিয়ায় কম কর্মী যাচ্ছেন। দু দেশের মধ্যে সরকারি ভাবে আলাপ আলোচনা চলছে। সুরাহা হলেই কর্মী বেশী যাবে। নিয়মিত ১০-১৫টি দেশে কর্মী যাচ্ছেন। দুবাই ও কাতার যাচ্ছে বেশী। জাপান ও কোরিয়ান ভাষা শেখা থাকলে বেতন বেশী পাওয়া যায়। বিদেশে কর্মরত প্রতিষ্ঠানে বকেয়া বেতন আদায় ও মৃত্যু হলে প্রত্যেক ব্যক্তিকে সরকারের পক্ষ থেকে ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রাম এ ৩টি বিমান বন্দরে তাদের সৎকারের জন্য ৩৫হাজার টাকার চেক ও ৩ লাখ করে টাকা আর্থিক অনুদান দেয়া হয়। ২০০৯ সাল থেকে খুলনা ও বাগেরহাটে মৃত্যু ব্যক্তিদের ওয়ারিশদের ৭কোটি ৬লাখ ৬০ হাজার ৫০৫টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হয়েছে। প্রবাসী কর্মীদের মেধাবী সন্তানদের সরকার বৃত্তি দিয়ে থাকে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
সুসংবাদ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর