• মঙ্গলবার   ০৪ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২০ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

আজকের খুলনা
৯৮

কুমিল্লায় ২৫ হাজার ইয়াবাসহ আটক ৫

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

কুমিল্লায় পৃথক দুটি অভিযানে ২৫ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ সময় আটক আটক করা হয় মাদক পাচারে জড়িত ৫ ব্যক্তিকে। বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে জেলার সদর উপজেলার আলেখারচর এবং দেবীদ্বার উপজেলার গোপালনগর এলাকা থেকে এসব ইয়াবা উদ্ধার ও মাদক কারবারিকে আটক করা হয়।

আটক মাদক কারবারিরা হচ্ছে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার গল্লাই পাঁচ ধারা গ্রামের মৃত আমির হোসেনের পুত্র হানিফ মিয়া (৩০), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবসা উপজেলার নয়নপুর (কোনা ঘাটা) গ্রামের মৃত অহেদ সরকারের পুত্র আলাল সরকার (৩০), একই এলাকার ছিদ্দিকর রহমানের পুত্র শফিকুল ইসলাম (৩৫), মৃত আবদুল মান্নানের পুত্র রেজাউল করিম (৪২) এবং কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বাগড়া গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের পুত্র নাজমুল মিয়া (২৬)। 

আটককৃতদের মধ্যে চান্দিনার হানিফ মিয়ার কাছ থেকে ২০ হাজার এবং বাকি চার০জনের কাছ থেকে ৫ হাজার ইয়াবা জব্দ করা হয় বলে জানিয়েছেন কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদোন্নতিপ্রাপ্ত) মো. শাখাওয়াত হোসেন। শুক্রবার সকালে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান তিনি।

পুলিশ সুপার শাখাওয়াত হোসেন জানান, কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে কিছু মাদক কারবারি বিপুলপরিমাণ ইয়াবা নিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা দিয়ে পাচার করার প্রস্তুতি নিচ্ছে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে ডিবি পুলিশের এসআই পরিমল দাসের নেতৃত্বে মহাসড়কের চৌদ্দগ্রাম এলাকায় তল্লাশিচৌকি বসানো হয়। তথ্য অনুযায়ী মাদক বহনকারী গাড়িটিকে থামানোর জন্য সিগন্যাল দেয় পুলিশ। কিন্তু সিগন্যাল অমান্য কুমিল্লার দিকে ছুটতে থাকে গাড়িটি। সাথে সাথে বেতার বার্তায় খবরটি পাঠানো হয় জেলা গোয়েন্দা কার্যালয়ে। তৎক্ষণাৎ গোয়েন্দা পুলিশের আরেকটি টিম মহাসড়কের কুমিল্লা সদর উপজেলার আলেখার চরে চেকপোস্ট বসিয়ে গাড়িটি আটক করতে সক্ষম হয়। পরে গাড়ি তল্লাশি করে ৭টি প্যাকেটে মোড়ানো অবস্থায় ২০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার এবং গাড়ির চালক হানিফ মিয়াকে আটক করা হয়। 

পুলিশের ভাষ্য, আটক হানিফ জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে, সে বহুবার টেকনাফ থেকে গাড়িতে করে মাদক এনে দেশের বিভিন্নস্থানে পাচার করেছে।

অপরদিকে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে কুমিল্লা-ব্রাহ্মণবাড়িয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবীদ্বার উপজেলায় পৃথক আরেকটি অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার ইয়াবা উদ্ধার ও ৪ মাদক কারবারিকে আটক করেছে ডিবি পুলিশের আরেকটি টিম। আটক চারজন বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত এলাকা থেকে চোরাচালানের মাধ্যমে ইয়াবা সংগ্রহ করে দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক কারবার করে আসছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

পৃথক অভিযানে ইয়াবা উদ্ধার ও জড়িত পাঁচজনকে আটকের ঘটনায় মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানভীর সালেহীন ইমন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আজিম উল আহসানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা