আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
সিরাজগঞ্জে ট্রাকচাপায় দুই ব্যবসায়ী নিহত মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে গাইবান্ধার রঞ্জু মিয়াসহ পাঁচ ‘রাজাকারের’ রায় মঙ্গলবার বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের পরিবারকে ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে করা রিটের শুনানি সাংবাদিক দিল মনোয়ারার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

সোমবার   ১৪ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ২৯ ১৪২৬   ১৪ সফর ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
মাগুরায় সিএনজি চাপায় পথচারী নিহত পুলিশের ওপর বোমা হামলায় জড়িত অভিযোগে গ্রেফতার ২ পিরোজপুরে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট আড়াইহাজারে এক সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে আটক ২ টঙ্গীতে ভয়াবহ আগুন, আহত ২
১২

কিশমিশের ভেষজগুণ

স্বাস্থ্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০১৯  

কিশমিশ সাধারণত রান্নার কাজেই বেশি ব্যবহৃত হয়। অতি সুস্বাদু একটি ফল কিশমিশ। অনেকের ধারণা, শুধু কিশমিশ খেলে দাঁতের অনেক ক্ষতি হয়ে থাকে। কিন্তু এটি একদম ভুল ধারণা। কিশমিশ খাওয়া আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী; জরুরি তো বটেই। কারণ-

মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়ায় : কিশমিশে রয়েছে বোরন, যা মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা দিয়ে থাকে। বোরন মনোযোগ বৃদ্ধিতে বিশেষভাবে কার্যকরী একটি উপাদান। মাত্র ১০০ গ্রাম কিশমিশ থেকে প্রায় ২.২ মিলিগ্রাম বোরন পাওয়া সম্ভব।

উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখে : কিশমিশের পটাশিয়াম উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে এবং অতিরিক্ত সোডিয়াম রক্ত থেকে দূর করে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা প্রতিরোধ করে।

কোলেস্টেরলের সমস্যা কমায় : কিশমিশে খারাপ কোলেস্টেরল রয়েছে ০%। এ ছাড়া কিশমিশের স্যলুবল ফাইবার খারাপ কলেস্টেরল দূর করে কোলেস্টেরলের সমস্যা প্রতিরোধে সহায়তা করে। এক কাপ কিশমিশ থেকে প্রায় চার গ্রাম পরিমাণে স্যলুবল ফাইবার পাওয়া যায়।

চোখের সুরক্ষা দেয় : প্রতিদিন কিশমিশ খাওয়ার অভ্যাস বার্ধক্যজনিত চোখের সমস্যা সমাধান করে। কিশমিশের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং পলিফেলন ম্যাকুলার ডিগ্রেডেশন প্রতিরোধ করে চোখের সুরক্ষায় কাজ করে। অ্যাসিডিটির সমস্যা সমাধান করে : কিশমিশের ম্যাগনেসিয়াম ও পটাশিয়াম আমাদের পাকস্থলীর অতিরিক্ত অ্যাসিড, যা অ্যাসিডিটির সমস্যা তৈরি করে, তা দূর করতে সহায়তা প্রদান করে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা