• শনিবার   ০৪ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২০ ১৪২৭

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

আজকের খুলনা
৬৮৪

কসবায় ভয়াবহ ট্রেন দূর্ঘটনা, নিহত ১৬

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০১৯  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলস্টেশনে তূর্ণা নিশীথা ও উদয়ন এক্সপ্রেসের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৬। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো শতাধিক এবং বহু হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কসবায় দুই ট্রেনের সংঘর্ষের ঘটনায় আহত ৬২ জন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আজ মঙ্গলবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম সহকারী পরিচালক ডা. আয়শা আক্তার এ তথ‌্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ৬২ জন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর মধ্য ৪১ জন ব্রাক্ষণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে এবং ১৩ জন্য সিএমসিএইচ অ‌্যান্ড কুমিল্লা সদর হাসপাতালে, সিলেট ওসমানী মেডিক‌্যালে চারজন, দুইজন আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ‌্য কমপ্লেক্সে ও দুইজন কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসকসাধীন রয়েছেন।

আখাউড়া রেলওয়ে থানা পুলিশের ওসি শ্যামল কান্তি দাস ট্রেনের দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও চট্টগ্রামগামী আন্তঃনগর তূর্ণা নিশিতা এক্সপ্রেস মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনে আসা মাত্রই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে দুই ট্রেনেরই কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়।” তিনি আরও জানান, ঘটনাস্থলে এবং হাসপাতালে নেয়ার পর এখন পর্যন্ত ১৬ জন মারা গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া বগির নিচে আরও মরদেহ থাকতে পারে। উদ্ধারের কাজ চলছে।

ইতিমধ্যে রেলওয়ে ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ঘটনা তদন্তে ৩টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এরমধ্যে আখাউড়া থেকে রিলিফ ট্রেন দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উদয়ন এক্সপ্রেসের মাঝ বরাবর দুইটি বগি দুমড়ে মুচড়ে রয়েছে। সেখানে কেউ আটকে পড়ে আছে কিনা, তা বোঝার চেষ্টা করছেন উদ্ধারকর্মীরা।

দুর্ঘটনাটি ঘটার সময় ট্রেন দুইটি চলন্ত অবস্থায় ছিল। এই ঘটনার পর ঢাকা-চট্টগ্রাম ও সিলেট-চট্টগ্রামের মধ্যে রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর