• রোববার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৬ ১৪২৭

  • || ১৬ রজব ১৪৪২

আজকের খুলনা

ঔষধি গুনে ভরপুর টমেটো

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর ২০২০  

সবজি হিসেবে টমেটো কে আমরা সবাই জানি। এর আছে নানা ধরনের গুণাগুণ রয়েছে। টমেটো তৃপ্তিদায়ক ফল ও সবজি। টমেটা খেলে রক্তের লাল কণিকা বৃদ্ধি পায় এবং শরীরের ফ্যাকাশে ভাব ও রক্তস্বল্পতা দূর হয়। আপেল, কমলালেবু, আঙুর, প্রভৃতি দামি ফলের চেয়ে টমেটোতে রক্ত তৈরীর ক্ষমতা বেশি।

তাহলে এখন টমেটোর পুষ্টি উপাদান ও গুণাগুণ সম্পর্কে জানব-

পুষ্টিগুণঃ

প্রতি ১০০ গ্রাম  টমেটোতে আছে ০.৯ গ্রাম আমিষ, ৩.৬ গ্রাম শর্করা, ০.৮ মি. গ্রাম আঁশ, ০.২ মি. গ্রাম চর্বি, ২০ কিলোক্যালরি শক্তি, ৪৮ মি. গ্রাম ক্যালসিয়াম, ২০ মি. গ্রাম ফসফরাস, ০.৬৪ মি. গ্রাম লৌহ, ৩৫১ মাইক্রোগ্রাম ক্যারোটিন ও ২৭ মি. গ্রাম ভিটামিন ‘সি’।

চর্মরোগের চিকিৎসায়ঃ

চর্মরোগের চিকিৎসায় টমেটোর রস একটি কার্যকর উপাদান। একটি টাটকা টমেটো নিয়ে তার রস সংগ্রহ করুন। তারপর সে রস ত্বকের যে স্থানটি রোগাক্রান্ত সেখানে মাখুন। এভাবে দিনে ২/৩ মাখুন। দেখবেন আপনার সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে।

সৌন্দর্য্য বৃদ্ধিতেঃ

সৌন্দর্য্য ধরে রাখতে এবং মুখে বয়সের ছাপ লুকাতে টমেটো ব্যবহার করা যায়। টাটকা টমেটো কেটে টুকরো টুকরো করার পর সেগুলোর রসের সঙ্গে খানিকটা চিনি মেশান।

এই চিনিমিশ্রিত রস প্রতিদিন মুখে মাস্ক হিসেবে ব্যবহার করুন। এতে মুখের ত্বক মসৃণ ও কোমল হবে। বয়স বাড়তে থাকলে মানুষের মুখে যে বয়সের ছাপ পড়ে এই টমেটোর চিকিৎসায় সেই ছাপ লুকাতে কার্যকর।

ক্যান্সার প্রতিরোধেঃ

ক্যান্সার প্রতিরোধক। টমেটোর পুষ্টিগুণের কথা আমরা আগেই উল্লেখ করেছি।এটা যে কোনো রোগের মাত্রা হ্রাস করার ক্ষমতা রাখে।

বিশেষ করে বলতে হয় ক্যান্সারের কথা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রতিদিন ১/২ টা টমেটো খেলে মানুষের ক্যান্সার আক্রান্ত হবার আশঙ্কা অনেক কমে যায় টমেটোতে।

লাইকোপেন নামে বিশেষ উপাদান রয়েছে যা ফুসফুস, পাকস্থলী, অগ্ন্যাশয়, কোলন, স্তন, মূত্রাশয়, প্রোস্টেট ইত্যাদি অঙ্গের প্রতিরোধে সাহায্য করতে পারে ।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণেঃ

এটা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে ইতিবাচক ভূমিকা রাখে। সকালে খালি পেটে ১/২টা টমেটো খাবেন। সঙ্গে কিছু চিনিও মিশিয়ে নিতে পারেন। এটি উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে ইতিবাচক ভূমিকা রাখে।

রক্ত স্বল্পতা নিয়ত্রনেঃ

রক্ত স্বল্পতার চিকিৎসায় কাজে লাগে। যারা রক্ত স্বল্পতা বা এনিমিয়ার ভুগছেন , তাদের জন্য এটা বেশ উপকারী একটি সবজি বা ফল। একটি আপেল, একটি টমেটো এবং ১৫ গ্রাম তিল একসাথে খাবেন। প্রতিদিন এক বা দুই বার খেতে পারেন। এতে রক্ত স্বল্পতার সমস্যা অনেকটাই দূর হবে।

মুখগহ্বরের ক্ষত চিকিৎসায়ঃ

ক্ষতের চিকিৎসায় এটা কার্যকর। প্রতিদিন সকাল ও সন্ধ্যায় একবার করে টমেটোর রস খান। দেখবেন দিন দশকের মাথায় মুখগহ্বরে মাঝে মাঝে যে ক্ষতের সৃষ্টি হয় তা দূর হয়ে যাবে।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা