আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
খুলনায় শিশু আফসানাকে গণধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসির আদেশ পূজা মণ্ডপে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাড়ে তিন লাখ সদস্য নিয়োজিত থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গুলিস্তান মহানগর নাট্যমঞ্চের পুকুর থেকে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার ডেঙ্গুর স্থায়ী সমাধানে ৫ বছর মেয়াদী পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে: সাঈদ খোকন প্রতিটি বিভাগীয় শহরে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে: প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীর বাগমারার মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা মামলায় ৩ জনের ফাঁসি ৪ জনকে যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ১৯ মুহররম ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
রোহিঙ্গাদের এনআইডি প্রদানে সহায়তাকারী তিনজন রিমান্ডে ঈশ্বরগঞ্জে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী নিহত, স্বামী আটক কিশোরগঞ্জে ট্রাকচাপায় ২ স্কুলছাত্র নিহত রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে ২ জনকে গুলি করে হত্যা গাজীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১১ মামলার আসামি নিহত
১৭

আসামের পর এবার মহারাষ্ট্রে এনআরসি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

আসামে নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি’র রেশ এখনও কাটেনি। সুতায় ঝুলে আছে ১৯ লাখ মানুষের ভবিষ্যৎ, যাদের নাম ওঠেনি এনআরসি’র চূড়ান্ত তালিকায়।

এর মধ্যেই ভারতের আরেক রাজ্য মহারাষ্ট্রে এনআরসি তৈরির তোড়জড়ের খবর সামনে এল।

জানা গেছে, অনুপ্রবেশকারীদের জন্য ডিটেনশন সেন্টার তৈরির কাজে জমি চেয়ে নবি মুম্বাই প্ল্যানিং অথরিটিকে চিঠি পাঠিয়েছে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র দফতর। 

প্রতিবেদনে বলা হয়, মুম্বাই থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরের নেরুলে ২ থেকে ৩ একর জমি চেয়ে সিটি অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভলপমেন্ট করপোরেশনের (সিডকো) কাছে চিঠি পাঠিয়েছে ওই রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতর।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সিডকো’র এক শীর্ষ কর্তা সংবাদমাধ্যমের কাছে এই খবরের সত্যতা স্বীকার করেছেন।

চলতি বছরের শুরুতে দেশের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ ইমিগ্রেশন পয়েন্টে ডিটেনশন সেন্টার তৈরির জন্য কেন্দ্রে পক্ষে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছিল।

ইতোমধ্যেই মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচনের ঢাকে কাঠি পড়ে গিয়েছে।

মুম্বাই অনুপ্রবেশকারীতে ভরে গেছে বলে দাবি করেছে শিবসেনা। যে কারণে আসামের মতো মহারাষ্ট্রে এনআরসি চালুর দাবি জানিয়েছে তারা।

গত সপ্তাহে শিবসেনা প্রধান অরবিন্দ সাওয়ান্ত বলেন, ‘ভূমিপুত্রদের সমস্যা সমাধানের জন্য আসামে এনআরসি’র প্রয়োজন ছিল। যে কারণে আমরা এনআরসি’র পদক্ষেপকে সমর্থন করেছিলাম। একইভাবে মুম্বাইয়ে বসবাসকারী অনুপ্রবেশকারীদের তাড়াতে একই পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন।’

এই প্রেক্ষাপটে মুম্বাইয়ের কাছে ডিটেনশন সেন্টার তৈরির খবরটি সামনে এল।

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর