আজকের খুলনা
ব্রেকিং:
চট্টগ্রামে তেলের ড্রাম বিস্ফোরণে দুই শিশু দগ্ধ পিরোজপুরে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু ঠাঁকুরগায়ে ঠান্ডাজনিত রোগে ৩ শিশুর মৃত্যু, হাসপাতালে শতাধিক শিশু বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ৩০ টি কুকুর উপহার দিল ভারত এসএ গেমসে ভারোত্তোলন ৯৬ কেজি শ্রেণীতে স্বর্ণপদক জিতলেন জিয়ারুল ইসলাম এসএ গেমসে ভারোত্তলনে স্বর্ণ জিতলেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত খুলনায় বোমা বিস্ফোরণ : আইএস’র দায় স্বীকার

রোববার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

আজকের খুলনা
সর্বশেষ:
সিদ্ধিরগঞ্জে ২৮ কেজি গাঁজাসহ এক জন আটক বরিশালে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আটক ১ আসন্ন মুজিব বর্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘ডক্টর অব লজ’ ডিগ্রি প্রদান করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি, আটক ২ মেহেরপুরে ৮ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারি আটক
৫৪

আজ ইতিহাসের ভয়াল ১২ নভেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত ১ : ৩০ এএম

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০১৯  

আজ ভয়াল (২ নভেম্বর)।১ ৯৭০ সালের ১২ নভেম্বর বাংলাদেশের উপকূলবাসীর জন্য স্মরণীয় দিন। এদিন বাংলাদেশের উপকূলের ওপর দিয়ে বয়ে যায় সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়। যার নাম ছিল ‘ভোলা সাইক্লোন’। এই ঘূর্ণিঝড় লণ্ডভণ্ড করে দেয় উপকূল। প্রাণ হারানোর পাশাপাশি, ঘরবাড়ি হারিয়ে পথে বসেন বহু মানুষ। এই ঘূর্ণিঝড় কাঁপিয়ে দিয়েছিল গোটা বিশ্বকেও।

এটি সিম্পসন স্কেলে ক্যাটাগরি ৩ মাত্রার ঘূর্ণিঝড় ছিল। ৮ নভেম্বর বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়টি শক্তিশালী হয়ে উত্তর দিকে অগ্রসর হতে থাকে। ১১ নভেম্বর এর সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ১৮৫ কিলোমিটারে পৌঁছায়। ওই রাতেই ১২ নভেম্বর উপকূলে আঘাত হানে ‘ভোলা সাইক্লোন’।

জলোচ্ছ্বাসের কারণে উপকূলীয় অঞ্চল ও দ্বীপসমূহ প্লাবিত হয়। ওই ঘূর্ণিঝড়ে প্রায় পাঁচ লাখ লোকের প্রাণহানি ঘটে। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ছিল ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলা। ওই সময়ে সেখানকার ১ লাখ ৬৭ হাজার মানুষের মধ্যে ৭৭ হাজার মানুষ প্রাণ হারান। একটি এলাকার প্রায় ৪৬ শতাংশ মানুষ প্রাণ হারানোর ঘটনা ছিল অত্যন্ত হৃদয়বিদারক।

’৭০-এর ঘূর্ণিঝড়ে মনপুরা উপকূলে প্রায় ৭ হাজার মানুষ প্রাণ হারায়। তখন সেখানে আবহাওয়া পূর্বাভাস শোনার জন্য বেতার ও টেলিভিশন ছিল না। এমনকি ছিল না কোনো আশ্রয়কেন্দ্রও। নিরাপদ আশ্রয়ের ব্যবস্থা থাকলেও এত মানুষের প্রাণহানি হতো না মনে করছেন স্থানীয় বাসিন্দরা।

ঘূর্ণিঝড়ে বিপর্যস্ত মনপুরাবাসীকে সমবেদনা জানাতে হেলিকাপ্টারে এসেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

ভোলা সাইক্লোনের আগে এবং পরে উপকূলের ওপর দিয়ে অনেকগুলো ঘূর্ণিঝড় বয়ে গেছে। কিন্তু ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানির বিচারে ১৯৭০ সালের ১২ নভেম্বরের ঘূর্ণিঝড় সবচেয়ে ভয়ংকর বলে প্রমাণিত।

 

 

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
এই বিভাগের আরো খবর