• সোমবার   ০৩ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ১৯ ১৪২৭

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

আজকের খুলনা
১৯

অর্ধেকেরও বেশি রোগবালাইয়ের প্রতিষেধক ‘রসুন’

আজকের খুলনা

প্রকাশিত: ৪ জুলাই ২০২০  

রান্নায় নানা রকম মশলার ব্যবহার আদিকাল থেকেই হয়ে আসছে। তেমনি একটি মসলা হচ্ছে রসুন। যা খাবারের স্বাদই শুধু বাড়ায় না, দেহের মারাত্মক সব রোগের প্রতিষেধক হয়ে কাজও করে। 

বিশেষজ্ঞদের মতে রোজ সকালে এক কোয়া রসুন খেলে অর্ধেকের বেশি রোগবালাই দূর হয়ে যাবে। নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন কতোটা উপকারী এই মশলাটি! চলুন এবার জেনে নেয়া যাক রসুনের গুণাগুণ সম্পর্কে- 

ঠাণ্ডা দূর করা 

যাদের প্রায়ই ঠাণ্ডা লাগে তাদের জন্য খালিপেটে এক কোয়া রসুন খাওয়া খুব উপকারী। একটানা দুই সপ্তাহ রসুন খেলে ঠাণ্ডা লাগার প্রবণতা কমে যায়। 

হৃদস্পন্দনের হার নিয়ন্ত্রণ 

হার্টের রোগীদের জন্য রসুন বেশ কার্যকর। এটি হৃদস্পন্দনের হার নিয়ন্ত্রণ ও হৃদপেশির দেয়ালে চাপ কমাতে কাজ করে। 

হজম সমস্যার সমাধান 

যকৃত ও মূত্রাশয়কে নিজের কাজ করতে সাহায্য করে রসুন। এছাড়া এটি পেটের গোলমাল ঠেকাতে, হজমের সমস্যা দূর করতেও বিশেষ ভূমিকা রাখে। 

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ 

অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর এই মশলাটি রক্ত পরিশুদ্ধ রাখতে সাহায্য করে। এটি রক্তে উপস্থিত শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখে। আর তাই রক্তচাপ থাকে নিয়ন্ত্রণে। 

বাজে টক্সিন দূর করা

শরীরকে ডিটক্সিফাই করে রসুন। রোজ সকালে খালিপেটে এক কোয়া রসুন খেলে সারা রাত ধরে চলা বিপাক প্রক্রিয়ার কাজ উন্নত হয়। এতে শরীরের দূষিত টক্সিন মূত্রের মাধ্যমে সহজে বেরিয়ে যায়। 

ভাইরাসজনিত রোগ প্রতিরোধ

বিভিন্ন ভাইরাস ও সংক্রমণজনিত রোগ- যেমন ব্রংকাইটিস, নিউমোনিয়া, হাঁপানি, হুপিং কাশি ইত্যাদি প্রতিরোধে রসুনের ভূমিকা অত্যধিক। 

এছাড়াও মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে এটি। তাই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রাখতে পারেন এক কোয়া রসুন। 

আজকের খুলনা
আজকের খুলনা
স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর